সিরাজগঞ্জে পৈত্রিক বাড়ীর দখল নিয়ে শরীকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত

53

স্টাফ রিপোর্টার সিরাজগঞ্জঃ সোনারদেশ২৪:

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জে পৈত্রিক বাড়ির দখল নিয়ে শরীকদের মধ্যে সংঘর্ষে নারীসহ উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

রোববার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যার আগে সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়নের মাছুয়াকান্দি এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে। আহতদের মধ্যে মাছুয়াকান্দি গ্রামের কামরুল ইসলামের স্ত্রী মোছা. সারা খাতুন (২৫), আজিজল হকের মেয়ে নাসরিন (৩০), ফরজ আলী শেখ (৬৭) ফরজ আলীর ছেলে লোকমান শেখ (৩৫), আব্দুল হাকিমের স্ত্রী সনেকা বেগম (৫০), মৃত সেকেন্দার আলীর ছেলে আব্দুল হাকিম (৫৫), আবুল হাসেমের স্ত্রী মাকসুদা খাতুন (৩৫), আবুল হাসেমের ছেলে মহসিন হাসান ও দুই মেয়ে মুক্তা এবং মুন্নিকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, চাকরির সুবাদে দীর্ঘদিন দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করার পর মাছুয়াকান্দি গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে আজিজল হক তার ছেলেমেয়েসহ গ্রামের বাড়িতে আসেন। তিনি তার পৈত্রিক জায়গায় থাকতে শুরু করলে চাচাতো ভাই চৌহালী উপজেলা নির্বাহী অফিসের অফিস সহকারি আবুল হাসেম বাঁধা দেন। এমনকি বাড়ির মেইন দরজায় তালা ঝুলিয়ে আজিজল হক গংদের বের করে দেন। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে গ্রামে দফায় দফায় শালিসী বৈঠক হয়। শালিসী বৈঠকের রায় বার বার অস্বীকার করেন আবুল হাসেম।

রোববার সন্ধ্যার আগে বিবাদমান ওই জমি নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আবুল হাসেম ও তার ছেলেমেয়েরা আজিজল হকের মেয়ে নাসরিন খাতুনের উপর হামলা করে। এরপর উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহমুদ হাসান জুয়েল বলেন, জমিজমা নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দ্রæত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

You might also like