আলিবাবা’র বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

28

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

ব্যবসায় একচেটিয়া আধিপত্য নিশ্চিতে অন্যায্য চর্চার ব্যাপারে ই-কমার্স কোম্পানি আলিবাবা’র বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে চীন।

বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) দেশটির স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ফর মার্কেট রেগুলেশন বা রাষ্ট্রীয় বাজার নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ (এসএএমআর) এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে।

এর ফলে হংকংয়ের বাজারে আলিবাবা’র ৯ শতাংশ বিনিয়োগ কমে গেছে। যার আনুমানিক মূল্য ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

এর আগে আলিবাবা’কে সতর্ক করা হয়েছিল। কারণ, তারা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক্সক্লুসিভ চুক্তি করতে বাধ্য করে। এতে করে আলিবাবা’র প্রতিদ্বন্দ্বী যেসব প্রতিষ্ঠান আছে, তাদের পণ্য বিক্রি আটকে যায়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদন থেকে এ খবর জানা যায়। প্রতিবেদনে বলা হয়, আলিবাবা এবং টেনসেন্টের মতো চীনের প্রযুক্তি বিষয়ক জায়ান্টরা চীন সরকারের ক্রমবর্ধমান নজরদারিতে পড়েছে। তাদের ব্যবসার আকার ও ক্ষমতা নিয়ে উদ্বিগ্ন নিয়ন্ত্রকরা বা সরকার।

খবরে বলা হয়েছে, আলিবাবা’র বিরুদ্ধে একচেটিয়া ব্যবসায়ী আচরণের এই তদন্ত হচ্ছে ‘দুইটি থেকে একটি বেছে নেওয়ার’ চর্চাকে কেন্দ্র করে। এই চর্চায় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এমন একটি সহায়তা চুক্তি করা হয়, যাতে তারা প্রতিদ্বন্দ্বী অন্য কোনো প্লাটফর্মে পণ্য বিক্রি করতে পারে না।

এ ব্যাপারে চীনের বাজার নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ বলছে, আলিবাবা’র দুইটি থেকে একটি বেছে নেওয়ার চর্চার ফলে অন্য প্রতিদ্বন্দ্বীরা পিছিয়ে পড়ছেন। এর মাধ্যমে দেশটির লাখ লাখ গ্রাহক একটি নির্দিষ্ট কোম্পানির ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছেন। যা খুবই উদ্বিগ্নের কারণ।

উল্লেখ্য, জ্যাক মা প্রতিষ্ঠিত আলিবাবা ইতোমধ্যে বিভিন্ন নিয়ন্ত্রক সংস্থার সমন্বিত অভিযানের মুখোমুখি হয়েছে। গত মাসে এর সহযোগী একটি প্রতিষ্ঠান অ্যান্ট গ্রুপের শেয়ার বাজারে তালিকাভুক্তকরণ স্থগিত করতে বাধ্য করা হয়।

You might also like