মধ্যরাতে ছিন্নমূল মানুষের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দিলেন ইউএনও

56

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের প্লাটফর্মে জরিনা বিবি একটি ছেঁড়া চাদর গায়ে জড়িয়ে ঘুমিয়ে আছেন। হিমেল শীতে তার চোখে ঘুম আসছিল না।

হঠাৎ বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) মধ্যরাতে কম্বল নিয়ে এসে জরিনার গায়ে জড়িয়ে দিলেন ইউএনও মো. মিনহাজুল ইসলাম। কম্বল পেয়ে অনেক খুশি হলেন এ বৃদ্ধা।

শুধু তাই নয় এভাবে জংশনের প্লাটফর্মে ছেঁড়া কাপড় মুড়ি দিয়ে ঘুমিয়ে থাকা রমিজ মিয়া, ফুলবানু, খেলু মিয়াসহ ৩০ জন ছিন্নমূল মানুষের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দেন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)।

শীতের রাতে কম্বল পেয়ে ছিন্নমূল লোকেরা সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ইউএনও স্যার আমাদের দুঃখ বুঝেন। এ কারণে তিনি মধ্যরাতে কম্বল নিয়ে ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় আমাদের গায়ে নিজ হাতে কম্বল জড়িয়ে দিয়েছেন। আমরা তার এ ঋণ পরিশোধ করতে পারবো না।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. মিনহাজুল ইসলাম বলেন, প্রচণ্ড শীত পড়েছে। কয়েকদিন পূর্বে রাতে ট্রেন থেকে নেমে চোখে পড়ে ছিন্নমূল লোকরা শীতে একটি ছেঁড়া চাদর দিয়ে কষ্ট করে ঘুমিয়ে আছে। উদ্যোগ নিয়ে আজ মধ্যরাতে তাদের গায়ে কম্বল পরিয়ে দিয়ে মনে তৃপ্তি পেলাম। প্রকৃত ব্যক্তিদের কাছে সরকারি এ কম্বল দিতে পেরেছি। এভাবে এ কম্বল শায়েস্তাগঞ্জের ছিন্নমূল লোকদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি।

You might also like