ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঠ্যাঁটামির মধ্যেই গুছিয়ে নিচ্ছেন বাইডেন

20

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত ডোনাল্ড ট্রাম্প একদিকে তাঁর উত্তরসূরির আগমনে ক্রমাগত বাধা সৃষ্টি করে চলেছেন, অন্যদিকে বেড়ে চলেছে ট্রাম্পের এসব ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ডের বিরোধিতা। এর মধ্যেই হোয়াইট হাউস গোছানোর প্রস্তুতি শুরু করেছেন জো বাইডেন। পাল্টাপাল্টি এই পরিস্থিতির মধ্যে সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতার পথে আরেকটু এগিয়েছেন রিপাবলিকানরা।

স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট নেতা জো বাইডেনের জয় নিশ্চিত হওয়ায় বিভিন্ন দেশের নেতারা তাঁকে অভিনন্দনবার্তা পাঠাচ্ছেন, কিন্তু সেসব বার্তা বাইডেনের কাছে পৌঁছাতে দিচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর। দায় অবশ্য ওই দপ্তরের নয়, বরং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের। কারণ তিনি পরাজয় স্বীকার করেননি এবং বাইডেনের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রক্রিয়াও শুরু করেননি। উল্টো ওই প্রক্রিয়ায় বাধা দেওয়ার সম্ভাব্য সব রাস্তাই অবলম্বন করছেন তিনি।

ট্রাম্পের উত্তরোত্তর বাধায় অবশ্য আটকে নেই বাইডেনের অগ্রগতি। হোয়াইট হাউসে যাঁকে তিনি চিফ স্টাফ করতে চান, গত বুধবার তাঁর নাম ঘোষণা করেছেন। গুরুত্বপূর্ণ এই পদে তিনি দীর্ঘদিনের সহযোগীকে বেছে নিয়েছেন। ওই পদে রন ক্লেইনের নাম ঘোষণা করে হবু প্রেসিডেন্ট বলেন, জাতির এই সংকটময় মুহূর্তে কাজ করার জন্য এবং জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ হিসেবে যেসব গুণ প্রয়োজন, ঠিক সেসব গুণে গুণান্বিত ক্লেইন।

যুক্তরাষ্ট্রের ভেটেরানস ডে উপলক্ষে গত বুধবার ফিলাডেলফিয়ায় কোরিয়ান ওয়ার মেমোরিয়াল পরিদর্শনের পর হোয়াইট হাউস চিফ অব স্টাফের নাম ঘোষণা করেন বাইডেন। দিনটি উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক পৃথক অনুষ্ঠানে হাজির হন। ওয়াশিংটনের বাইরে আর্লিংটন ন্যাশনাল সিমেট্রি পরিদর্শনে যান তিনি। গত ৩ নভেম্বরের নির্বাচনের পর জনসমক্ষে এটাই তাঁর প্রথম উপস্থিতি। তবে জনতার উদ্দেশে তিনি কোনো বার্তা দেননি। বরং তাঁর কথাবার্তা এখনো ভোট কারচুপির প্রমাণবিহীন দাবি এবং এসংক্রান্ত টুইটের মধ্যে সীমাবদ্ধ আছে। পরাজয় স্বীকার না করার অবস্থানে ট্রাম্প অনড় থাকলেও তাঁর দলের লোকজন এরই মধ্যে মুখ খুলতে শুরু করেছেন। তাঁদের কেউ কেউ প্রেসিডেন্টকে পরাজয় স্বীকার করে নেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন। ট্রাম্পবিরোধিতায় আরেক ধাপ এগিয়েছেন ওকলাহোমার রিপাবলিকান সিনেটর জেমস ল্যাংকফোর্ড। গত বুধবার তিনি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, চলতি সপ্তাহের মধ্যে বাইডেনের জন্য প্রেসিডেন্টের নির্ধারিত দৈনিক গোয়েন্দা ব্রিফিংয়ের সুযোগ নিশ্চিত করা না হলে তিনি এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করবেন। দৈনিক গোয়েন্দা ব্রিফিং প্রেসিডেন্সির অবশ্য নির্ধারিত একটি অংশ।

সিনেটে রিপাবলিকানদের অগ্রগতি : আলাস্কায় আরেকটি সিনেট আসন জিতে নিয়েছে রিপাবলিকানরা। বর্তমান রিপাবলিকান সিনেটর ড্যান সুলিভান ৫৭ শতাংশের বেশি ভোট পেয়ে পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন। আলাস্কায় জয়ের মধ্য দিয়ে কংগ্রেসের ১০০ আসনের সিনেটের অর্ধেক চলে গেল রিপাবলিকান শিবিরের হাতে। এখন সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য তাদের প্রয়োজন আর মাত্র একটি আসন।

সূত্র: এএফপি।

You might also like