দেশে বর্জ্যপানিতে মিললো করোনা : গবেষণা

61

তথ্য ও প্রযুক্তি ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

কার্যকর ওষুধ আবিষ্কার না হলেও থেমে নেই করোনা (কোভিড-১৯) গবেষণা। অল্প করে হলেও বাংলাদেশেও এই ভাইরাস নিয়ে গবেষণা হচ্ছে। তেমনি এক গবেষণায় বর্জ্যপানিতে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পেয়েছেন দেশের বিজ্ঞানীরা।

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানী এই গবেষণাটি পরিচালনা করেন। নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ফিরোজ আহমেদের নেতৃত্বে এই গবেষণা হয়।

এই পরীক্ষার জন্য ১০ জুলাই থেকে ২৯ আগস্ট পর্যন্ত মোট ১৬ বার পানির নমুনা পরীক্ষা করেন গবেষকরা। নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামের করোনা আইসোলেন সেন্টারের নর্দমা, পয়োনিষ্কাশনব্যবস্থা ও শৌচাগারের সঞ্চালন লাইন থেকে এই পানি সংগ্রহ করা হয়।

এ বিষয়ে অধ্যাপক ফিরোজ আহমেদের জানান, এজন্য ১৬ বার পানির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রতিবার সংগ্রহ করা নমুনায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এই পরীক্ষায় মানুষের শরীরের করোনা শনাক্ত করার প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়।

এই ধরনের গবেষণা দেশে প্রথম বলে মন্তব্য করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও করোনা নিয়ে গঠিত সরকারি জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সদস্য অধ্যাপক নজরুল ইসলাম।

তিনি আরো জানান, কোনো এলাকায় করোনা পজিটিভ আছে কিনা, তা শনাক্ত করতে এমন পরিবেশগত পরীক্ষা খুব দরকার। বর্জ্যে যদি করোনার উপস্থিতি শনাক্ত করা যায়, তবে ভবিষ্যৎ ঝুঁকি কমানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা সম্ভব হবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ইতালি, স্পেন ও ফ্রান্স বর্জ্যপানিতে করোনার উপস্থিতি নিয়ে গবেষণা চালিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি আবাসিক এলাকার বর্জ্যপানিতে করোনার পরীক্ষা শুরু করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়টির জনস্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান ওয়াফা এল সদর জানান, বর্জ্যপানির পরীক্ষা করা খুব সহজ, কিন্তু এটা মানসম্পন্ন। এতে করে আসলেই কোনো জনগোষ্ঠীর মধ্যে করোনা আছে কিনা, তার আগাম বার্তা পাওয়া যাবে। ফলে ব্যবস্থা গ্রহণ করাও সহজ হবে।

You might also like