‘মীরাক্কেল’ থেকে বাদ পড়ে বিস্ফোরক মন্তব্য শ্রীলেখার

33

বিনোদন ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

বাংলাদেশেও সমান খ্যাতি রয়েছে ভারতীয় টিভি চ্যানেল জি-বাংলার জনপ্রিয় কমেডি শো ‘মীরাক্কেলের’।
আর তুমুল জনপ্রিয় সেই শো থেকে বাদ পড়লেন কলকাতার আলোচিত অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। কলকাতার বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর, আগামী সিজনে শ্রীলেখার চেয়ারে বিচারক হিসেবে বসতে দেখা যাবে অন্য কাউকে। যদিও সেই বিচারকের নাম জানা যায়নি এখনও। খবর এইসময়ের।

এদিকে মীরাক্কেল থেকে বাদ পড়ে অনেকটাই ভেঙে পড়েছেন শ্রীলেখা। হতাশার কথা জানিয়ে মীরাক্কেল থেকে বাদপড়ার খবর নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে জানিয়েছিলেন শ্রীলেখা নিজেই। এর পরই কলকাতার বিনোদনজগতে বিষয়টি নিয়ে হইচই পড়ে যায়। শ্রীলেখা ভক্তরা জানতে চান, হঠাৎ কোন দোষে তাদের প্রিয় অভিনেত্রীকে কেনো বাদ দেয়া হলো?

যদিও এখন পর্যন্ত মীরাক্কেল কর্তৃপক্ষ এর জবাব দেয়নি। তবে সোমবার রাতে আচমকাই বোমা ফাটান শ্রীলেখা। সত্যি কথা বলায় তাকে বাদ দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ আনেন তিনি।

নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শ্রীলেখা লেখেন, ‘সবচেয়ে জনপ্রিয় কমেডি শো শুরু হতে চলেছে আমাকে ছাড়া। সত্যি কথা বলার এই মূল্যটাই দিতে হয় আমাকে। ব্র্যান্ডের প্রতি একনিষ্ঠ থাকা কিংবা সিস্টেমের সব অংশে তেল না দেয়ার (আপনারা বুঝে নিন) চরম মূল্য। ধন্যবাদ সংশ্লিষ্ট চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে। আপনি ঠিক বলেছেন মহিলা, আমি নিজের অযোগ্যতাকে মেনে নিচ্ছি। আমাকে যারা অপছন্দ করেন তারা পার্টি করতে পারেন। আমাকে সমর্থনের জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। জীবনটাই সবচেয়ে বড় রঙ্গমঞ্চ।’

পরে আরেকটি পোস্টে শ্রীলেখা লেখেন, ‘এগুলোই প্রমাণ করে দেয় স্বজনপ্রীতি কেমন রন্ধ্রে রন্ধ্রে রয়েছে এবং আমি সঠিক কথাই বলেছিলাম। এটি আমার সঙ্গে ঘটা কোনো নতুন ঘটনা নয়, বরং অন্যকিছু হলেই আমি বেশি চমকে যেতাম। এবং হ্যাঁ মহিলা (স্বস্তিকাকে উদ্দেশ করে) তোমার ‘ছোট্ট প্রশ্ন’-এর জবাব যেটা সেই সময় আমি এড়িয়ে গিয়েছিলাম। তুমি একদম সঠিক, আমার অযোগ্যতা প্রসঙ্গে। আমি নম্রতার সঙ্গে সেটি মেনে নিচ্ছি। আমি সিস্টেমের সঙ্গে লড়াই করে ব্যর্থ হতে পারি, তবে মাথা নত করব না।’

You might also like