চীনে নতুন রোগ, বন্ধ্যা হচ্ছেন পুরুষরা

113

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

করোনা (কোভিড-১৯) মহামারীর মধ্যেই একটি ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ দেখা দিয়েছে চীনে। এতে দেশটির উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। এই ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের কারণে পুরুষ রোগীরা বন্ধ্যাত্বের শিকার হচ্ছেন বলেও জানান চিকিৎসকরা।

চীনের উত্তর-পশ্চিম গানসু প্রদেশের লানঝৌ শহরে একটি বায়োফার্মাসিটিক্যাল কোম্পানি রয়েছে। গত বছর কোম্পানির ল্যাবোরেটরি থেকে ব্রুসেলা নামে এই ব্যাকটেরিয়া বের হয়। এরপর থেকে গত কয়েকমাসে তিন হাজারের বেশি মানুষ এই ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হন। এমন খবর প্রকাশ করেছে সংবাদ প্রতিদিন।

লানঝৌর স্বাস্থ্য কমিশনের সূত্র মতে, শহরের ২৯ লক্ষ বাসিন্দা রয়েছে। এর মধ্যে এ পর্যন্ত ২১ হাজার ৮৪৭ জনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের মধ্যে তিন হাজার ২৪৬ জনের শরীরে এই ব্যাকটেরিয়া শনাক্ত করা হয়েছে। ব্রুসেলায় আক্রান্ত গরু, উট, ভেড়া ও ছাগলের মতো গৃহপালিত পশু থেকেই এটি মানুষের মধ্যে সংক্রমণ ঘটাচ্ছে বলে শঙ্কা করা হচ্ছে। এই ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত অনেক পুরুষের মধ্যে বন্ধ্যাত্বের লক্ষণ দেখা গেছে বলেও জানায় এই স্বাস্থ্য কমিশন।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) জানিয়েছে, এই ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের কারণে মাল্টা নামক একটি জ্বর হয়। এই জ্বরটি অনেক অঞ্চলে ভূমধ্যসাগরীয় জ্বর নামেও পরিচিত। এই রোগ হলে মাথাব্যথা, মাংসপেশীতে ব্যথা, জ্বর ও অবসাদের সৃষ্টি হয়। গৃহপালিত পশু থেকে এটির সংক্রমণের কথা শোনা গেলেও মানুষ থেকে মানুষের মধ্যে এই ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের ঘটনা বিরল।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের জুলাই-আগস্ট মাসে ঝংমু লানঝৌ বায়োলজিক্যাল ফার্মাসিটিক্যাল কারখানা থেকে প্রাণীদের জন্য ব্রুসেলা ব্যাকটেরিয়ার ভ্যাকসিন তৈরির সময় ব্যাকটেরিয়াটি বাহিরে বেরিয়ে যায়। এরপর গত ফেব্রুয়ারিতে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চায় কোম্পানিটি। এজন্য আটজন কর্মীকে কঠোর শাস্তি দেয়।

You might also like