গণপরিবহনের বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহার করা উচিত: ন্যাপ

30

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

কোনো ধরনের স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ও অতিরিক্ত যাত্রী বহন করায় জনস্বার্থে অবিলম্বে গণপরিবহনের ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহার করে সরকার নির্ধারিত আগের ভাড়া কার্যকর করা উচিত বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ)।

রোববার (১৬ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া এ কথা বলেন।

তারা বলেন, ১ জুন থেকে করোনা ভাইরাস মহামারি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চলাচলের জন্য পরিবহন মালিকদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানো হয়। কিন্তু গণপরিবহনে মালিকরা সেই স্বাস্থ্যবিধি এখন আর মানছেন না। এছাড়া, সরকারি-বেসরকারি সব অফিস আগের নিয়ম অনুযায়ী চালু হওয়ায় যাত্রীদের চাপও বেড়েছে। তবে গণপরিবহন মালিকরা বর্ধিত ভাড়া কমায়নি। ফলে সাধারণ যাত্রীরা অহেতুক বর্ধিত ভাড়া দিয়ে যাচ্ছেন।

নেতারা বলেন, করোনাকালীন ক্ষতি পুষিয়ে নিতে অধিকাংশ সড়কে সরকারের বর্ধিত ৬০ শতাংশ ভাড়ার চেয়েও বেশি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। এতে করোনা সংকটে কর্মহীন ও আয় কমে যাওয়া সাধারণ মানুষের গণপরিবহনে যাতায়াত দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। সরকার মালিকদের পাতানো ফাঁদে পা দিয়ে বাসের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে সংকটকালে দেশের অসহায় জনগণের ওপর অযৌক্তিকভাবে চাপিয়ে দিয়েছে। ফলে দেশব্যাপী সব প্রকার যানবাহনের ভাড়া প্রায় দ্বিগুণ হয়ে যায়।

নেতারা অবিলম্বে ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহার করে গণপরিবহনে আগের ভাড়া কার্যকর করার জন্য সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

You might also like