অ্যাঙ্গোলার সাবেক প্রেসিডেন্টের ছেলের ৫ বছরের কারাদণ্ড

26

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

আর্থিক প্রতারণার দায়ে অ্যাঙ্গোলার সাবেক প্রেসিডেন্ট জস এদুয়ার্দো দস সান্তোসের ছেলের পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। অ্যাঙ্গোলার জাতীয় সার্বভৌম সম্পদ তহবিলের প্রধান থাকাকালীন ৫০০ মিলিয়ন ডলার আত্মসাৎ করে সুইস ব্যাংকে পাঠানোর দায়ে এ দণ্ড দেয়া হয়েছে সাবেক প্রেসিডেন্টপুত্র জস ফিলোমিনো দস সান্তোসকে।

২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত জাতীয় সার্বভৌম সম্পদ তহবিলের প্রধান ছিলেন ৪২ বছর বয়সী ফিলোমিনো। ওই সময় তহবিল থেকে অন্তত দেড় বিলিয়ন ডলার আত্মসাতের চেষ্টার অভিযোগে গত ডিসেম্বরে তাকে তলব করেন আদালত।

শুক্রবার অ্যাঙ্গোলার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জোয়াও দা ক্রুজ পিত্রা রায় ঘোষণায় বলেছেন, জালিয়াতি এবং অনৈতিক প্রভাব খাটানোর অপরাধে ফিলিমিনোকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এদিন ন্যাশনাল ব্যাংক অব অ্যাঙ্গোলার সাবেক গভর্নর ভল্টার ফিলিপ দা সিলভাসহ আরও তিন বিবাদীকে চার থেকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণা, অর্থ আত্মসাৎ এবং অনৈতিক প্রভাব ব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে।

২০১৭ সালে ক্ষমতায় আসা অ্যাঙ্গোলার প্রেসিডেন্ট জোয়াও লরেন্সোর নেতৃত্বে দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে সাবেক প্রেসিডেন্ট পরিবারের প্রথম সদস্য হিসেবে কারাদণ্ডে দণ্ডিত হলেন ফিলোমিনো। অবশ্য গত ফেব্রুয়ারিতে তার সৎবোন ইসাবেল দস সান্তোসের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছিলেন অ্যাঙ্গোলান তদন্তকারীরা। রাষ্ট্রায়ত্ত তেল কোম্পানি সোনাঙ্গোলের দায়িত্বে থাকাকালীন অব্যবস্থাপনা, অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারসহ অসংখ্য অপরাধের অভিযোগে তদন্ত চলছে তার বিরুদ্ধে।

দক্ষিণপশ্চিম আফ্রিকার তেলসমৃদ্ধ দেশ অ্যাঙ্গোলা ১৯৭৫ থেকে ২০০২ সালব্যাপী দীর্ঘ গৃহযুদ্ধের ধাক্কা কাটানোর চেষ্টা করছে। তবে দেশটির বিপুল পরিমাণ তেল ও খনিজ সম্পদের লাভ ভোগ করছে হাতেগোনা কিছু অভিজাত গোষ্ঠী। এছাড়া অ্যাঙ্গোলার বেশিরভাগ জনগণই এখনও চরম দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করছে।

You might also like