বাইডেনকে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরুর কাগজ দিচ্ছে না ট্রাম্পের কর্মী

21

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

বিভিন্ন সরকারি দফতরে যোগাযোগ ও ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়ার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ সংগ্রহের জন্য বাইডেন শিবিরকে সত্যায়ন দিতে গড়িমসি করছে ট্রাম্প প্রশাসন।
মার্কিন আইন অনুযায়ী, নতুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে কাজ করতে হলে জেনারেল সার্ভিসেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন- জিএসএ থেকে জয়ী হওয়ার নিশ্চয়তা পত্র নিতে হয়।

কিন্তু ট্রাম্পের হাতে নিয়োগ পাওয়া জিএসএ প্রশাসক এমিলি মারফি বলছেন, এখনও বাইডেনের বিজয় নিশ্চিত হয়নি। ফলে তিনি সত্যায়ন কাগজ দিচ্ছেন না। খবর নিউইয়র্ক টাইমস ও এএফপির।

নির্বাচনে হেরে যাওয়ার পর রিপাবলিকান দলে নিজের গ্রহণযোগ্যতা ধরে রাখার জন্য একটি তহবিল গঠনের উদ্যোগ নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরাজয় স্বীকার না করে আইনি লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা ও আদালতে গেলেও সম্ভবত বাস্তবতা অনুধাবন করতে পারছেন তিনি।

এ কারণে লিডারশিপ পলিটিক্যাল অ্যাকশন কমিটি (পিএসি) নামে একটি ফেডারেল ফান্ড রাইসিং সংস্থা গঠন করতে যাচ্ছেন ট্রাম্প। এর কাজ হবে অসংখ্য মানুষের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করা এবং বিভিন্ন নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের জন্য ব্যয় করা।

অপেশাদার রাজনীতিক ও একরোখা হওয়ার কারণে ক্ষমতায় আসার আগ থেকেই বাইরে তো বটেই, খোদ রিপাবলিকান দলের অনেক শীর্ষ ও প্রভাবশালী নেতার অপছন্দের ব্যক্তিতে পরিণত হন ট্রাম্প। তারপর গত চার বছরে এই অপছন্দের সারি আরও দীর্ঘ হয়।

এবারের নির্বাচনের আগ মুহূর্তে ট্রাম্পের হার আঁচ পেয়ে অনেক রিপাবলিকান জ্যেষ্ঠ নেতা প্রকাশ্যে তার বিরোধিতা করেছেন। এমনকি তিনি পরাজয় মেনে না নেয়ায় তার হাতে নিয়োগ পাওয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তাও সরে যাচ্ছেন ট্রাম্পের কাছ থেকে।

এ অবস্থায় ট্রাম্প বুঝতে পেরেছেন, আসলে তিনি যাই বলেন বা করেন শেষ পর্যন্ত হোয়াইট হাউস ছাড়তে হবে অতি দ্রুত। তাই দলে নিজের গ্রহণযোগ্যতা ধরে রাখতে পিএসি গঠন করতে যাচ্ছেন দ্বিতীয় মেয়াদে হেরে যাওয়া ট্রাম্প।

You might also like