ট্রাম্পসমর্থকদের সশস্ত্র মহড়া, যুক্তরাষ্ট্রে সহিংসতার শঙ্কা

47

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে ইতোমধ্যে নির্বাচিত হয়েছেন ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী ও সাবেক উপ-রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন। তবে পরাজিত প্রার্থী ও বর্তমান রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প এমন পরাজয় মেনে নিচ্ছেন না। তিনি নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ তুলেছেন।

এমন অবস্থায় ৭ নভেম্বর, শনিবার থেকে দেশটির বেশ কয়েকটি রাজ্যের সড়কে ট্রাম্পের সমর্থকদের বিক্ষোভের সংবাদ পাওয়া গেছে। তাদের অনেকেই অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিচ্ছেন।

বিভিন্ন মার্কিন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে জানা গেছে, ট্রাম্পের সশস্ত্র সমর্থকরা জর্জিয়া, অ্যারিজোনা ও পেনসিলভানিয়ার সড়কে মহড়া দিয়েছেন। এসব রাজ্যেই দুই প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে।

জর্জিয়ার এমন কিছু ট্রাম্প সমর্থক দাবি করেছেন, তারা নিরাপত্তাগত কারণে ও ‘বাইডেনের হাত থেকে আমেরিকাকে রক্ষা করতে’ অস্ত্র তুলে নিয়েছেন। অনেকেই আবার বলছেন, ‘আমরা যুদ্ধে যাচ্ছি, তাই অস্ত্র নিয়েছি।’

এদের অনেকের হাতেই স্বয়ংক্রিয় ভারী অস্ত্র দেখা গেছে বলে সংবাদে প্রকাশিত হয়েছে। এতে যে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কায় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

কিছু শহরে উত্তেজনা চরম পর্যায়ে রয়েছে বলে নিউইয়র্ক টাইমসের সংবাদে জানানো হয়েছে। ট্রাম্প ও বাইডেনের সমর্থকদের মধ্যে যেকোনো সময় বড় কোনো ধরনের সহিংসতার আশঙ্কাও প্রকাশ করেছে পত্রিকাটি।

বেশ কিছু জায়গায় বাইডেনের সমর্থকদের সঙ্গে ট্রাম্পের সমর্থকারীদের হাতাহাতির খবর পাওয়া গেছে। বিভিন্ন জায়গায় উত্তেজনা বিরাজ করায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি বাড়ানো হয়েছে।

পেনসিলভানিয়ার হ্যারিসবার্গ শহরে দূর থেকে উভয়পক্ষের ওপর নজর রাখছে পুলিশ। ট্রাম্প ও বাইডেনের সমর্থকদের অবস্থানের দূরত্ব নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে তারা।

এদিকে নির্বাচনে জালিয়াতির যে অভিযোগ ট্রাম্প তুলেছেন, তার সমর্থনে ওরেগন অঙ্গরাজ্যের সালেম শহরে সমাবেশ করেছে উগ্র ডানপন্থী সংগঠন প্রাউড বয়েজ। অবশ্য পুলিশ অবশ্য তাদের সমাবেশে বাধা দিয়েছে।

মিশিগানের ল্যানসিং শহরেও ট্রাম্পের সমর্থনে মিছিল বের করেছেন উগ্র ডানপন্থীরা। তাদের মুখে সড়ক দখলে নেয়ার স্লোগান শোনা গেছে।

You might also like