একদিনে প্রায় সাড়ে চার লাখ করোনারোগী শনাক্ত

34

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

গত ২৪ ঘণ্টায় নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে সারা পৃথিবীতে আরো প্রায় ৭ হাজার মানুষ মারা গেছেন। একই সময়ে নতুন করে প্রায় সাড়ে চার লাখ মানুষের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এই বৈশ্বিক মহামারীতে মৃতের সংখ্যা ১১ লাখ সাড়ে ৩৬ হাজারের কাছাকাছি। সরকারি হিসেবে, মোট আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪ কোটি ১৫ লাখের কাছাকাছি।

পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার’র তথ্য মতে, আজ ২২ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৯টা পর্যন্ত সারা পৃথিবীতে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৪ কোটি ১৪ লাখ ৮৪ হাজার ৬২৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে ১১ লাখ ৩৬ হাজার ৩৩৫ জন ইতোমধ্যে মারা গেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩ কোটি ৯ লাখ ১০৫ হাজার ৮৬৯ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৯৪ লাখ ৩৭ হাজার ৪২১ জন করোনারোগী, যাদের মধ্যে ৭৪ হাজার ১৭০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সর্বোচ্চ ৮৫ লাখ ৮৪ হাজার ৮১৯ জন মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। ভারতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৭ লাখ ৫ হাজার ১৫৮ জনের শরীরে ভাইরাসটির উপস্থিতি ধরা পড়েছে। ব্রাজিলে তৃতীয় সর্বোচ্চ ৫৩ লাখ ৬৪৯ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া রাশিয়ায় চতুর্থ সর্বোচ্চ ১৪ লাখ ৪৭ হাজার ৩৩৫ জন ও স্পেনে পঞ্চম সর্বোচ্চ ১০ লাখ ৪৬ হাজার ৬৪১ জনের কোভিড-১৯ ধরা পড়েছে।

শীর্ষ দশে থাকা অন্য দেশগুলো হলো—আর্জেন্টিনা (১০ লাখ ৩৭ হাজার ৩২৫ জন), কলম্বিয়া (৯ লাখ ৮১ হাজার ৭০০ জন), ফ্রান্স (৯ লাখ ৫৭ হাজার ৪২১ জন), পেরু (৮ লাখ ৭৬ হাজার ৮৮৫ জন) ও মেক্সিকো (৮ লাখ ৬৭ হাজার ৫৫৯ জন)।

২ লাখ ২৭ হাজার ৪০৯ জনের মৃত্যুতে কোভিড-১৯ মহামারীর প্রাণহানিতেও শীর্ষে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ৫৫ হাজার ৪৫৯ জন। ভারতে তৃতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ১৬ হাজার ৬৫৩ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া মেক্সিকোতে চতুর্থ সর্বোচ্চ ৮৭ হাজার ৪১৫ জন ও যুক্তরাজ্যে পঞ্চম সর্বোচ্চ ৪৪ হাজার ১৫৮ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

এ হিসেবে শীর্ষ দশে রয়েছে—ইতালি (মৃত্যু ৩৬ হাজার ৮৩২ জন), স্পেন (মৃত্যু ৩৪ হাজার ৩৬৬ জন), ফ্রান্স (মৃত্যু ৩৪ হাজার ৪৮ জন), পেরু (মৃত্যু ৩৩ হাজার ৯৩৭ জন) ও ইরান (মৃত্যু ৩১ হাজার ৩৪৬ জন)।

এছাড়া কলম্বিয়ায় ২৯ হাজার ৪৬২ জন (১১তম), আর্জেন্টিনায় ২৭ হাজার ৫১৯ জন (১২তম), রাশিয়ায় ২৪ হাজার ৯৫২ জন (১৩তম), দক্ষিণ আফ্রিকায় ১৮ হাজার ৭৪১ জন (১৪তম), চিলিতে ১৩ হাজার ৭১৯ জন (১৫তম), ইন্দোনেশিয়ায় ১২ হাজার ৮৫৭ জন (১৬তম), ইকুয়েডরে ১২ হাজার ৪৫৩ জন (১৭তম), বেলজিয়ামে ১০ হাজার ৫৩৯ জন (১৮তম), ইরাকে ১০ হাজার ৪১৮ জন (১৯তম), জার্মানিতে ৯ হাজার ৯৯৯ জন (২০তম), কানাডায় ৯ হাজার ৮২৬ জন (২১তম), তুরস্কে ৯ হাজার ৫১৩ জন (২২তম), বলিভিয়ায় ৮ হাজার ৫৫৮ জন (২৩তম), নেদারল্যান্ডসে ৬ হাজার ৮৭৩ জন (২৪তম), ফিলিপাইনে ৬ হাজার ৭৪৭ জন (২৫তম), পাকিস্তানে ৬ হাজার ৭০২ জন (২৬তম), মিসরে ৬ হাজার ১৫৫ জন (২৭তম), রোমানিয়ায় ৬ হাজার ৬৫ জন (২৮তম), সুইডেনে ৫ হাজার ৯২৯ জন (২৯তম) ও বাংলাদেশে ৫ হাজার ৭২৩ জন (৩০তম) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

You might also like