করোনায় প্রাণহানি প্রায় ১০ লাখ ৩৮ হাজার

35

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

গত ২৪ ঘণ্টায় নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে সারা পৃথিবীতে আরো প্রায় ৫ হাজার মানুষ মারা গেছেন। একই সময়ে নতুন করে তিন লক্ষাধিক মানুষের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এই বৈশ্বিক মহামারীতে মৃতের সংখ্যা ১০ লাখ ৩৮ হাজার ছুঁইছুঁই। সরকারি হিসেবে, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি সোয়া ৫১ লাখ ছাড়াল।

পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার’র তথ্য মতে, আজ ৪ অক্টোবর, রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সারা পৃথিবীতে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৩ কোটি ৫১ লাখ ২৭ হাজার ৫৯৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে ১০ লাখ ৩৭ হাজার ৯৪১ জন ইতোমধ্যে মারা গেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ কোটি ৬১ লাখ ২১ হাজার ৭৭৭ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৭৯ লাখ ৬৭ হাজার ৮৭৮ জন করোনারোগী, যাদের মধ্যে ৬৬ হাজার ৭০ জনের অবস্থা গুরুতর।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সর্বোচ্চসংখ্যক মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ সংখ্যা বেড়ে ৭৬ লাখ ৮৪৬ জনে দাঁড়িয়েছে। ভারতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৫ লাখ ৪৭ হাজার ৪১৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। ব্রাজিলে তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪৯ লাখ ৬ হাজার ৮৩৩ জন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া রাশিয়ায় চতুর্থ সর্বোচ্চ ১২ লাখ ৪ হাজার ৫০২ জন ও কলম্বিয়ায় পঞ্চম সর্বোচ্চ ৮ লাখ ৪৮ হাজার ১৪৭ জনের কোভিড-১৯ ধরা পড়েছে।

শীর্ষ দশে থাকা অন্য দেশগুলো হলো—পেরু (৮ লাখ ২৪ হাজার ৯৮৫ জন), স্পেন (৮ লাখ ১০ হাজার ৮০৭ জন), আর্জেন্টিনা (৭ লাখ ৯০ হাজার ৮১৮ জন), মেক্সিকো (৭ লাখ ৫৭ হাজার ৯৫৩ জন) ও দক্ষিণ আফ্রিকা (৬ লাখ ৭৯ হাজার ৭১৬ জন)।

কোভিড-১৯ মহামারীর প্রাণহানিতেও শীর্ষে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ১৪ হাজার ২৭৭ জনে দাঁড়িয়েছে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ৪৬ হাজার ১১ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে ব্রাজিলে। ভারতে মারা গেছেন তৃতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ১ হাজার ৮১২ জন। এছাড়া মেক্সিকোতে চতুর্থ সর্বোচ্চ ৭৮ হাজার ৮৮০ জন ও যুক্তরাজ্যে পঞ্চম সর্বোচ্চ ৪২ হাজার ৩১৭ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

এ হিসেবে শীর্ষ দশে রয়েছে—ইতালি (মৃত্যু ৩৫ হাজার ৯৬৮ জন), পেরু (মৃত্যু ৩২ হাজার ৬৬৫ জন), ফ্রান্স (মৃত্যু ৩২ হাজার ১৯৮ জন), স্পেন (মৃত্যু ৩২ হাজার ৮৬ জন) ও ইরান (মৃত্যু ২৬ হাজার ৭৪৬ জন)।

এছাড়া কলম্বিয়ায় ২৬ হাজার ৫৫৬ জন (১১তম), রাশিয়ায় ২১ হাজার ২৫১ জন (১২তম), আর্জেন্টিনায় ২০ হাজার ৭৯৫ জন (১৩তম), দক্ষিণ আফ্রিকায় ১৬ হাজার ৯৩৮ জন (১৪তম), চিলিতে ১২ হাজার ৯১৯ জন (১৫তম), ইকুয়েডরে ১১ হাজার ৫৯৭ জন (১৬তম), ইন্দোনেশিয়ায় ১১ হাজার ৫৫ জন (১৭তম), বেলজিয়ামে ১০ হাজার ৩৭ জন (১৮তম), জার্মানিতে ৯ হাজার ৫৯৭ জন (১৯তম), কানাডায় ৯ হাজার ৪৬২ জন (২০তম), ইরাকে ৯ হাজার ৩৪৭ জন (২১তম), বলিভিয়ায় ৮ হাজার ৭৩ জন (২২তম), তুরস্কে ৮ হাজার ৩৮৪ জন (২৩তম), পাকিস্তানে ৬ হাজার ৫০৭ জন (২৪তম), নেদারল্যান্ডসে ৬ হাজার ৪৪৯ জন (২৫তম), মিসরে ৫ হাজার ৯৭০ জন (২৬তম), সুইডেনে ৫ হাজার ৮৯৫ জন (২৭তম), ফিলিপাইনে ৫ হাজার ৬৭৮ জন (২৮তম), বাংলাদেশে ৫ হাজার ৩২৫ জন (২৯তম) ও সৌদি আরবে ৪ হাজার ৮৫০ জন (৩০তম) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

You might also like