করোনার জন্য মায়ের মুখটা দেখতে পারছি না : অমিত হাসান

19

বিনোদন ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

১৯৮৬ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তিনি বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে সম্পৃক্ত হন। ১৯৯০ সালে মুক্তি পায় তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘চেতনা’। ছবিটি পরিচালনা করেন ছটকু আহমেদ।

একক নায়ক হিসেবে তিনি প্রথম অভিনয় করেন মনোয়ার খোকনের ‘জ্যোতি’ চলচ্চিত্রে। এরপর তিনি উপহার দিয়েছেন ‘প্রেমের সমাধি’, ‘শেষ ঠিকানা’, ‘জিদ্দী’, ‘বিদ্রোহী প্রেমিক’, ‘তুমি শুধু তুমি’, ‘বাবা কেন চাকর’, ‘রঙিন উজান ভাটি’, ‘ভালবাসার ঘর’র মতো জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্র।

একটা সময়ে এসে তিনি খল অভিনেতা হিসেবে অভিনয় শুরু করেন। প্রযোজক হিসেবেও সফল অমিত হাসান। তাকে চলচ্চিত্র শিল্পীদের সফল নেতা বলেও মানেন অনেকে। বর্তমানে তিনি বাংলদেশ ফিল্ম ক্লাবের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।

You might also like