চট্টগ্রামে পুলিশ কর্মকর্তা লিয়াকত সহ ৯জনের বিরুদ্ধে মামলা

26

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যামামলার আসামি পুলিশ কর্মকর্তা লিয়াকত আলির বিরুদ্ধে ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগে চট্টগ্রামে একটি মামলা হয়েছে। আজ বুধবার (২৬ আগস্ট) চট্টগ্রামের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেম মো. নোমানের আদালতে নালিশি অভিযোগটি করেন ব্যবসায়ী জসিম উদ্দীন।

এতে ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে দুই লাখ টাকা চাঁদা আদায়, মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া, হত্যাচেষ্টা ও নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

লিয়াকতসহ নয় ‍পুলিশ সদস্যসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে নালিশি অভিযোগটি করেছেন চট্টগ্রামের এই ব্যবসায়ী।এরমধ্যে লিয়াকত, অন্য দুই পুলিশ সদস্যসহ মোট সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পুলিশ পরিদর্শক লিয়াকত কক্সবাজারের টেকনাফে তল্লাশি চৌকিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে এখন কারাগারে রয়েছেন।

চট্টগ্রামের মামলাটি হয়েছে ২০১৪ সালের ঘটনায়, তখন লিয়াকত চট্টগ্রাম ডিবিতে এসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বাদীর আইনজীবী জুয়েল দাশ বলেন, ১৩ জনের বিরুদ্ধে নালিশি অভিযোগ করেছি। আদালত অভিযোগকারীর জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন। অভিযোগটি তদন্ত করতে চট্টগ্রাম নগর পুলিশের (সিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) উপ-কমিশনারকে (উত্তর) নির্দেশ দিয়েছেন। ২০১৪ সালের ১৪ জুন এই ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

যে সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে তাদের মধ্যে লিয়াকত ছাড়া অন্যরা হলেন কুমিল্লার দাউদকান্দি থানার তৎকালীন দুই এসআই নজরুল ও হান্নান, বাদীর ব্যবসায়িক প্রতিদ্বন্দ্বী এস এম সাহাবুদ্দীন, বিষ্ণুপদ পালিত, কাজল কান্তি বৈদ্য ও জিয়াউর রহমান।

You might also like