সিনহা হত্যা : আর্মড পুলিশের ৩ সদস্য র‌্যাব হেফাজতে

29

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

পুলিশের গুলিতে নিহত মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় আটক আর্মড পুলিশের (এপিবিএন) ৩ সদস্যকে রিমান্ডে নিয়েছে র‍্যাব। আজ ২২ আগস্ট, শনিবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে তাদের রিমান্ডে নেয়া হয়।

এরা হলেন— সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) শাহজাহান, কনস্টেবল মোঃ রাজিব ও কনস্টেবল মোঃ আবদুল্লাহ। রিমান্ডে নেয়ার আগে তাদের কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে সদর হাসপাতাল নিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়।

গত ১৭ আগস্ট তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে র‍্যাব। পরদিন আদালতে হাজির করে এপিবিএনের এই তিন সদস্যের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। কিন্তু আদালত ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভ সড়কে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান। তিনি সহকর্মীদের নিয়ে ইউটিউব চ্যানেলের জন্য ভিডিওচিত্র ধারণ করতে সেখানে গিয়েছিলেন। টেকনাফের মারিষবুনিয়া পাহাড়ে ভিডিওচিত্র ধারণ শেষে মেরিন ড্রাইভ দিয়ে কক্সবাজারের হিমছড়ি এলাকার নীলিমা রিসোর্টে ফিরছিলেন তিনি। শামলাপুর তল্লাশিচৌকিতে তাকে গুলি করে হত্যা করে পুলিশ।

এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে দুটি মামলা হয়। টেকনাফ থানায় দায়ের করা মামলায় সরকারি কাজে বাধা ও গুলিতে নিহত হওয়ার অভিযোগ আনা হয়। এতে সিনহার সহযোগী সিফাতকেও আসামি করা হয়।

অপরদিকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে রামু থানায় দায়ের করা মামলায় ভিডিওচিত্রটির পরিচালক শিপ্রা দেবনাথকে আসামি করা হয়। তারা দুজনই বর্তমানে জামিনে মুক্ত আছেন।

পরবর্তীতে ৫ আগস্ট নিহত সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়ার বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এদের মধ্যে বরখাস্তকৃত টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক লিয়াকত আলী, থানার এসআই নন্দলাল রক্ষিত ৭ জন পুলিশ সদস্য রয়েছেন। বর্তমানে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব র‌্যাবকে দেয়া হয়েছে।

You might also like