১৭ লাখ টাকা ভ্যাট ফাঁকি: সিগারেট ফ্যাক্টরির বিরুদ্ধে মামলা

30

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

পুরনো ও ব্যবহৃত ব্যান্ডরোল ব্যবহার করে প্রায় সাড়ে ১৭ লাখ টাকা ভ্যাট ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে চট্টগ্রামের ইন্টারন্যাশনাল টোবাকো ইন্ডাস্ট্রিজের বিরুদ্ধে মামলা করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

অবৈধ ব্যান্ডরোল ব্যবহারের দায়ে সিগারেটগুলো জব্দ করার পাশাপাশি বুধবার (০৯ সেপ্টেম্বর) ভ্যাট আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ভ্যাট গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান রাইজিংবিডিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ভ্যাট গোয়েন্দার উপপরিচালক তানভীর আহমেদের নেতেৃত্বে একটি গোয়েন্দা দল মঙ্গলবার চট্টগ্রামের চান্দগাঁও শিল্প এলাকার সিগারেট কারখানাটি আকস্মিক পরিদর্শন করে। এতে তারা কারখানা ফ্লোরে ৬০ কার্টন সিগারেটে ব্যবহৃত ব্যান্ডরোল সংযুক্ত অবস্থায় দেখতে পায়।  এসব সিগারেটে ‘সাহারা’ ও ‘এক্সপ্রেস’ নামীয় ব্রান্ডের ৬ লাখ শলাকা পাওয়া যায়।  যেখানে ভ্যাট ফাঁকির পরিমাণ ১৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

ভ্যাট আইন অনুসারে প্রতিটি সিগারেট প্যাকেটে সিকিউরিটি প্রিন্টিং থেকে সরবরাহ করা নতুন ব্যান্ডরোল ব্যবহার করতে হয়। কিন্তু চট্টগ্রামের সিগারেট কারখানাটি পুরনো ও ব্যবহৃত ব্যান্ডরোল ব্যবহার করে ভ্যাট ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টা করেছে বলে ভ্যাট গোয়েন্দারা মনে করছেন। যে কারণে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

You might also like