শিরোনাম:

রাস্তার ময়লা তুলে বাসার গেটে রেখে গেলেন মেয়র আতিক

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের নতুন ভেন্যু চূড়ান্ত

ইউনাইটেড এয়ারকে সহায়তা দিতে বেবিচককে অনুরোধ বিএসইসির

খিলক্ষেতে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার

কাদের মির্জার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাকে মারধরের অভিযোগ

গণহারে করোনার টিকাদান শুরু

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২১

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

রাজধানী ঢাকাসহ দেশজুড়ে একযোগে শুরু হয়েছে করোনাভাইরাসের টিকাদানের কর্মসূচি। আজ ৭ ফেব্রুয়ারি, রবিবার সকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। রাজধানীর অর্ধশত কেন্দ্রসহ দেশের সহস্রাধিক কেন্দ্রে আজ প্রথমদিন বেলা আড়াইটা পর্যন্ত এই টিকাদান কর্মসূচি চলবে।

টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধনকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘করোনার টিকাদানের মাধ্যমে আজ দেশে একটি মহৎ কাজের শুরু হলো। এর আগে যারা টিকা নিয়েছেন তারা সবাই সুস্থ আছেন।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে প্রথম কোভিড দেখা দেয় ৮ মার্চ। তখন আমরা রোগী শনাক্ত করতে সক্ষম হই এবং ১৮ মার্চ প্রথম করোনায় মৃত্যু হয়। তখন থেকেই আমরা প্রস্তুতি গ্রহণ শুরু করি। সব কিছু মিলিয়ে আমরা সুফল পাই।’

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় এইসব কাজ এগিয়ে যেতে থাকে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘অনেক সমালোচনা হয়েছে, সমস্ত সমালোচনার ঊর্ধ্বে উঠে আমরা কাজ করতে থাকি।’

আজকে বাংলাদেশের অবস্থা তুলনামূলক ভাল আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের অবস্থান অন্যান্য দেশের থেকে তুলনামূলক অনেক ভালো। আমরা জুন মাস থেকে ভ্যাকসিন আনার কাজ শুরু করি। আজকে আমরা সারাদেশব্যাপী ভ্যাকসিন কার্যক্রম উদ্বোধন করতে যাচ্ছি। দেশের সকল জেলার সাথে আমরা যুক্ত হয়েছি।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, আজ টিকা নিতে ইতোমধ্যে তিন লাখ ২৮ হাজার জন নিবন্ধন করেছেন। টিকার কর্মসূচি সফল করতে সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করেই এই উদ্বোধন করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

এদিন ঢাকায় প্রধান বিচারপতি, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও সচিবদের অনেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রে টিকা নেয়ার কথা রয়েছে।

সর্বশেষ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, আজ সকাল ৯টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) করোনা টিকা নিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতি। এরা হলেন—আপিল বিভাগের বিচারপতি জিনাত আরা, হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহীম ও একই বেঞ্চের অপর বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগনিয়ন্ত্রণ শাখা সূত্রে জানা গেছে, রাজধানীসহ সারাদেশের মোট বিভিন্ন স্থানে সর্বমোট এক হাজার ৫টি হাসপাতালে টিকা দেওয়া হবে। এর জন্য নিয়োজিত থাকবে স্বাস্থ্যকর্মীদের ২ হাজার ৪০২টি দল। ঢাকায় অর্ধশতাধিক স্থানে টিকাদান হবে। ঢাকা উত্তর সিটির ৩০টি ও দক্ষিণ সিটির ১৯টি কেন্দ্রে টিকাদানে নিয়োজিত থাকবে তিন শতাধিক টিম।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত