শিরোনাম:

ঢাকা ব্যাংকের ভল্ট থেকে পৌনে ৪ কোটি টাকা উধাও

চট্টগ্রাম বন্দরে বিটুমিনবাহী বিদেশি জাহাজ জব্দ

অন্তরঙ্গ ছবি ধারণ করে আরও ২ নায়িকাকে ফাঁদে ফেলেছিল পরীর বন্ধু অমি

চীনের টিকা নিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় করোনায় আক্রান্ত ৩৫০ চিকিৎসক

বিশ্বজুড়ে নতুন আতঙ্ক ‘সিংকহোল’, হঠাৎ করেই তৈরি হচ্ছে দানবীয় গর্ত

আশুলিয়ায় চাঁদাবাজিতে বাঁধা দেওয়ায় পুলিশের ওপর হামলা : গ্রেপ্তার ৩

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : জুন ৪, ২০২১

শেয়ার করুন

সাভারের আশুলিয়ায় পার্কিং এর নামে পরিবহনে চাঁদাবাজিতে বাঁধা দেওয়ায় পুলিশকে ঘিরে ফেলে হামলা ও পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের নিকট হতে চাঁদাবাজির ৪ হাজার ২ শত ৫০ টাকা জব্দ করা হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৩ জুন) আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

আজ শুক্রবার (৪ জুন) সকাল ১০টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) হারুন-অর-রশিদ।

গ্রেপ্তাররা হলেন— আশুলিয়ার কাইচাবাড়ী কালার টেক এলাকার ইদ্রিস আলীর ছেলে মামুন (৪০), টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানার দরিহাতি গ্রামের শামসের মিয়ার ছেলে রাজ্জাক মিয়া (৩৮) ও সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানার কান্দাপাড়া গ্রামের নুরুল হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩০)।

পলাতক আসামিরা হলেন— আশুলিয়ার বাইপাইল পূর্বপাড়া (মণ্ডলপাড়া) এলাকার মৃত মীর আলী মণ্ডলের ছেলে বাদশা মণ্ডল (৪২), বাইপাইলের স্বপনের বাড়ির ভাড়াটিয়া মেহেদী (৪০), টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানার জলছত্র গ্রামের হৃদয় (৩৫), আশুলিয়ার ইউনিক এলাকার সেলিম (৩৫), জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ থানার সুজন (৩২) ও আশুলিয়ার গাজিরচট এলাকার আনোয়ার হোসেন (৩৫)। তারা সবাই বাদশা মণ্ডলের অধীনে পরিবহনে চাঁদাবাজি করতেন।

এসআই হারুন-অর-রশিদ জানান, আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকায় নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কে কিছু চাঁদাবাজ পার্কিং এর নামে বিভিন্ন পরিবহন থেকে ১০০ টাকা করে চাঁদা আদায় করছে। যার ফলে যান চলাচল বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে তাৎক্ষণিক এলাকায় যানজট নিরসনে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তা হারুন-অর-রশিদ ও আসাদুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে চাঁদাবাজদের বাধা দেন এবং যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করেন। পরে ২০ থেকে ৩০ জন চাঁদাবাজ চারদিকে থেকে পুলিশকে ঘিরে ফেলে আক্রমণ করে।

পরে থানায় খবর দিলে অতিরিক্ত পুলিশ অফিসার ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে আসলে আসামিরা পালিয়ে যায়। এ সময় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের নিকট হতে চাঁদাবাজির ৪ হাজার ২ শত ৫০ টাকা জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে গতরাতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই সঙ্গে পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত