শিরোনাম:

নরসিংদীতে স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত

তাল গাছের শতাধিক বাবুই পাখির বাসা ভেঙে কারাগারে ৩ কৃষক

ডক্টরেট ডিগ্রি পেলেন মমতাজ

মঙ্গলবার ব্যাংকে লেনদেন ৩টা পর্যন্ত

তারাবি ও মসজিদে জামাত নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা

রাতের ডায়েটে কমবে ওজন

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : জানুয়ারি ৭, ২০২১

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

শরীরকে আরও একটু তরতাজা ও সুঠাম দেখাতে আমরা অনেকেই ডায়েট প্ল্যান করি। কিন্তু কয়দিন পরেই আমাদের কর্ম ব্যস্ততা বা আলসেমির কারণে হারিয়ে যায় সেই ডায়েট পরিকল্পনা। কিন্তু বাঁচতে হলে তো সুস্থভাবে বেচেঁ থাকা চাই। তাই তো নিয়ম মেনে করতে হবে ডায়েট নয়তো যে জীবনের সামনের পথে সমুহ বিপদ!

আমরা অতিরিক্ত ওজন নিয়ে কম-বেশি সবাই দুশ্চিন্তায় থাকি। অনেকেই ব্যায়াম করে ওজন কমাতে চান। কেউবা ওজন কমাতে অনেকটা সময় না খেয়েই কাটিয়ে দেন। তাদের মধ্যে কেউ আবার রাতের খাবার একেবারেই এড়িয়ে চলেন। কিন্তু আপনি জানেন কি, ওজন কমানোর জন্য রাতের বেলা খাবারের গুরুত্ব কতটা বেশি?

এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা বলেন, ওজন কমাতে রাতের বেলা খাওয়া বাদ দিয়ে ডায়েট করা মোটেই বুদ্ধিমানের কাজ নয়। এতে বরং লাভের থেকে ক্ষতির পরিমাণই বেশি। এর ফলে ওজন তো কমবেই না, বরং স্বাস্থ্যহানি ঘটবে। ক্ষেত্রে ওজন কমাতে রাতে সহায়ক তিনটি কার্যকর ডায়েট প্লানের কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞরা।

রাতে খেয়েও দ্রুত ওজন কমানোর সেই ডায়েট প্লান :

ডায়েট প্ল্যান-১ : যারা ভাত জাতীয় খাবার পছন্দ করেন

রাতে নিয়ম করে নিচের চার্টটি অনুসরণ করুন-

১ কাপ ভাত : ভাতের পরিমাণ ১ কাপই হতে হবে। কোনোভাবেই এর চেয়ে বেশি নয়।

১ টুকরো মাছ/ মাংস : মাঝারি আকৃতির এক টুকরো মাছ/মাংস শরীরের আমিষের চাহিদা পূরণ করবে।

১ কাপ সবজি : কম তেলে বা তেলবিহীন সবজিভাজি ফ্যাট অনেকাংশে কমায়। ১ কাপ পরিমাণ সবজি অবশ্যই ডায়েট চার্ট-এ রাখবেন। সবচেয়ে ভালো হয় কাঁচা সবজির সালাদ রাখলে।

১ কাপ ডাল : ডাল ফ্যাট কাটতে সহায়তা করে। পাশাপাশি শরীরে পুষ্টি জোগায়।

দই : ১ কাপ টক দই। এটা খাবার হজমে সাহায্য করবে।

ডায়েট প্ল্যান-২: যারা রুটি জাতীয় খাবার পছন্দ করেন
দুটি পাতলা আটার রুটি : রুটিটি অবশ্যই আটার হতে হবে। লাল আটা হলে ভালো হয়। ময়দা ও পাউরুটি হলে চলবে না। কারণ ময়দার রুটি ও পাউরুটি খেলে ওজন বাড়ে।

১/২ কাপ সবজি : কম তেলে বা তেলবিহীন সবজিভাজি আটার রুটির সঙ্গে খেতে পারেন।

১/২ টি ডিমের সাদা অংশ : ডিম প্রোটিনের খুব ভালো একটি উৎস। ডিমের সাদা অংশে ক্যালোরি অনেক কম থাকে। তাই ১/২ টি ডিমের সাদা অংশ খেতে পারেন কিংবা এক টুকরো মাছ বা মাংস, যা আপনার পছন্দ।

১/২ টি ফল: নাসপাতি, আপেল কিংবা পেপে এই তিনটি ফলের যেকোনো একটি খাবেন। দই খেতে চাইলে ২/৩ টেবিল চামচ খেতে পারেন।

ডায়েট প্ল্যান-৩: দ্রুত ওজন কমানোর জন্য

খুব দ্রুত ওজন কমাতে চাইলে নিচের ডায়েট প্ল্যানটি যে কেউ অনুসরণ করতে পারেন। কারণ দ্রুত ওজন কমাতে এটি খুবই কার্যকরী।

আধা কাপ হাই ফাইবার কর্ণফ্লেক্স : হাই ফাইবার কর্ণফ্লেক্স ওজন কমাতে সাহায্য করে। তবে কর্ণফ্লেক্স অবশ্যই চিনি ছাড়া হতে হবে। যদি চিনি ছাড়া খেতে না পারেন তবে মধু ব্যবহার করতে পারেন।

১ কাপ মাখন ছাড়া দুধ : মাখন ছাড়া দুধে ক্যালোরির পরিমাণ অনেক কম থাকে। তাই এই ডায়েট চার্ট-এ ১ কাপ মাখন ছাড়া দুধ অবশ্যই রাখবেন।

ফল : এই ডায়েট চার্টে ফলের গুরুত্ব অনেক বেশি। রাতে বেশি করে পাকা পেঁপে খাবেন। এটি ফ্যাট কমাতে অনেক সহায়তা করে।

চাইলে কর্ণফ্লেক্স ও দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন। তবে দুধটা ঠাণ্ডা না খেয়ে গরম খাবেন। সঙ্গে খেতে পারেন এক মুঠো কাঠবাদাম।

ডায়েট প্ল্যান তো  আমরা হরহামেশাই করি কিন্তু সেটার বাস্তবায়নে প্রয়োজন কঠিন মনোবল। অন্যথায় এই ডায়েট  পরিকল্পনাও জলে যাবে যদি না মনকে শক্ত করে নিয়ম মেনে এই পরিকল্পনা অনুসরণ  না করি।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত