শিরোনাম:

নরসিংদীতে স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত

তাল গাছের শতাধিক বাবুই পাখির বাসা ভেঙে কারাগারে ৩ কৃষক

ডক্টরেট ডিগ্রি পেলেন মমতাজ

মঙ্গলবার ব্যাংকে লেনদেন ৩টা পর্যন্ত

তারাবি ও মসজিদে জামাত নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা

বিদ্রোহী প্রার্থীদের সতর্ক করলেন যুবলীগ চেয়ারম্যান

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : জানুয়ারি ৫, ২০২১

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

নৌকার বিরুদ্ধে কোন বিদ্রোহী প্রার্থীকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না এবং তাদেরকে কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ।

সোমবার (৪ জোনুয়ারি) রাজধানীর বনানীতে কড়াইল এরশাদ স্কুল মাঠে যুবলীগের উদ্যোগে গরীব-অসহায়দের মাঝে শীতবস্ত্র ও মাস্ক বিতরণ কেরার আগে দেয়া বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

পরশ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু আমাদের শিক্ষা দেয়, দেশপ্রেমের, অপরিসীম সাহসের, আদর্শিক চরিত্রের। এই শিক্ষাকে বুকে ধারণ করে আমাদের যুবলীগ সর্বদা গরীব-দুঃখী-অসহায় মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে।’

‘করোনা মহামারিতে বিনা পারিশ্রমিকে কৃষকের ধান কেটে দেওয়া, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত লাশের দাফন করা, কর্মহীন মানুষের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়া, ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স সেবাসহ নানা ধরণের জনকল্যাণমূলক কাজ করে যাচ্ছে যুবলীগ। এই করোনা মহামারিতে আমরা প্রায় ৪৩ লক্ষ অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছি।’

এ সময় যুবলীগের নেতা-কর্মীরা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার নির্দেশ দেন তিনি।

যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, ২০০১-২০০৬ সাল পর্যন্ত এই কড়াইল বস্তিবাসী বিএনপি-জামাতের নির্যাতনের শিকার হয়েছে। তারা বস্তিবাসীকে জিম্মি করে মাদকের আস্তানা গড়ে তুলেছিল। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার অত্যন্ত প্রিয় এই বস্তিবাসীর ওপর যদি কোন আঘাত আসে তাহলে তা কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে।

 তিনি যুবসমাজকে উদ্দেশ্য করে বলেন, এই বস্তিতে মাদক থাকবে না, এই বস্তিতে সন্ত্রাস থাকবে না। মাদক ব্যবসায়ীদের চিহ্নিত করে তাদেরকে আইনের হাতে তুলে দেওয়া হবে। আর যেন কোন মায়ের সন্তান মাদকের নেশায় ধ্বংস হয়ে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে যুবলীগের নেতা-কর্মীদের।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন-যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো. সাদ্দাম হোসেন পাভেল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক এড. মুক্তা আক্তার, উপ-ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো. আলতাফ হোসেন, উপ-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া শামীম, সহ-সম্পাদক আব্দুর রহমান জীবন, ঢাকা মহানগর যুবলীগ উত্তর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন।

উপস্থিত ছিলেন-যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য এড. মামুনুর রশীদ, মঞ্জুর আলম শাহীন, মো. মোয়াজ্জেম হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার মৃণাল কান্তি জোয়ার্দার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. বদিউল আলম, রফিকুল আলম সৈকত জোয়ার্দার, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মো. মাজহারুল ইসলাম, ডা. হেলাল উদ্দিন, মো. সাইফুর রহমান সোহাগ, জহির উদ্দিন খসরু, মশিউর রহমান চপল, এড. মো. শামীম আল সাইফুল সোহাগ, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো. শামীম খান, তথ্য ও যোগাযোগ (আইটি) সম্পাদক মো. সামছুল আলম অনিক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক বিপ্লব মোস্তাফিজ, জনশক্তি ও কর্মসংস্থান সম্পাদক শাহীন মালুম, উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা, উপ-তথ্য ও যোগাযোগ (আইটি) সম্পাদক এন আই আহমেদ সৈকত প্রমুখ।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত