শিরোনাম:

নিলামে উঠেছে ম্যারাডোনার প্রথম বিশ্বকাপ জার্সি

আজ প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্য

বিশ্বকাপ দেখতে যাওয়া সবাইকে টিকা দেবে কাতার!

হেফাজতের ঢাকা মহানগর সভাপতি আল্লামা জুনায়েদ গ্রেফতার

আরও এক সপ্তাহ বাড়তে পারে লকডাউন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ : একদিনে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা এক লাখ ছাড়াল

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : ডিসেম্বর ৩০, ২০২০

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত ১০০ দিনব্যাপী অনলাইনভিত্তিক ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো এক দিনের প্রতিযোগী সংখ্যা এক লাখের মাইলফলক স্পর্শ করেছে।

গত ১ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে ৩৯ হাজার ৬৮৮ জন প্রতিযোগীর অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতার ২৮তম দিনে অংশগ্রহণ করেছেন মোট ১ লাখ ১৭৯ জন প্রতিযোগী। কুইজে অংশগ্রহণের জন্য এ পর্যন্ত ৮ লক্ষাধিক মানুষ নিবন্ধন করেছেন যাদের মধ্যে সাড়ে তিন লক্ষের বেশি প্রতিযোগী প্রায় ২১ লক্ষ বার এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছেন।

কুইজে সঠিক উত্তরদাতাদের মধ্য থেকে কম্পিউটার লটারির মাধ্যমে প্রতিদিন ১০০ জন বিজয়ী নির্বাচিত করা হয়। এই ১০০ জন বিজয়ীর প্রথম পাঁচজন পাচ্ছেন দারাজের সৌজন্যে একটি করে স্যামসাং এম৪০ স্মার্টফোন এবং বিজয়ী সবাই পাচ্ছেন টেলিটকের সৌজন্যে একটি করে টেলিটক সিম এবং ১০০ দিন মেয়াদী ১০০ জিবি ইন্টারনেট ডাটা। এভাবে একশ দিনে মোট ১০ হাজার প্রতিযোগী নির্বাচিত করা হবে।

প্রতিদিনের কুইজের বিজয়ীর পাশাপাশি কুইজটি যারা ফেসবুকে শেয়ার করছেন, তাদেরকে নিয়ে প্রতি সপ্তাহের শেষে আরেকটি লটারি করে ৭ জন বিজয়ী নির্বাচিত করা হয়। যারা প্রতিদিনের কুইজ ফেসবুক বা অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করেন, তাদেরকে নিয়েই সপ্তাহ শেষে ফেসবুক লাইভে এ লটারি হয়। প্রতি সপ্তাহের লাইভে একজন বিশেষ অতিথি থাকেন, যিনি লাইভেই সরাসরি বিজয়ীকে ফোন করে অভিনন্দন জানান এবং তাদের অনুভূতি জানতে চান। ২৯ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে লাইভ লটারির চতুর্থ পর্বের অতিথি হয়ে আসছেন শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এ পর্বের ৭ জন বিজয়ীর প্রত্যেকেই পাচ্ছেন একটি করে আকর্ষণীয় ল্যাপটপ।

বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় এ অনলাইন কুইজ আয়োজনে সহায়তা করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন। স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হিসেবে আছে তথ্য মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। এছাড়াও এ আয়োজনে সার্বিকভাবে আছে দারাজ বাংলাদেশ, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইউনাইটেড গ্রুপ এবং টেলিটক বাংলাদেশ।

কুইজে অংশ নিতে https://mujib100.gov.bd অথবা https://quiz.priyo.com ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। এছাড়া প্রিয় অ্যাপেও (https://dl.priyo.com/) নিবন্ধন করে কুইজে অংশ নেওয়া যাবে। নিবন্ধনের সময় অবশ্যই প্রতিযোগীর সঠিক নাম, ছবি, ঠিকানা ও ফোন নম্বর ব্যবহার করতে হবে। ভুয়া নাম বা ছবি ব্যবহার করলে কাউকে বিজয়ী হিসেবে বিবেচনা করা হবেনা। প্রতিদিন রাত ১২ টার পর আগের দিনের কুইজের সঠিক উত্তর এবং বিজয়ীদের নাম ও ছবি কুইজের ওয়েবসাইট এবং প্রিয় অ্যাপ এর মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। অ্যাপ এবং ওয়েবসাইট থেকে যে কেউ আগের দিনগুলোর কুইজ ও বিজয়ীদের তালিকাও দেখতে পারবেন।

বঙ্গবন্ধুর জীবনকে আরও গভীরভাবে জানার দারুণ উপলক্ষ্য তৈরী করে দিয়েছে এ কুইজ। অন্যান্য কুইজগুলোর চেয়ে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব’ কুইজ অনেকাংশেই আলাদা। এ কুইজে ধারাবাহিকভাবে বঙ্গবন্ধুর ছোটবেলা থেকে রাজনীতিতে প্রত্যাবর্তন এবং এক পর্যায়ে বাঙালির মুক্তির দিশারী হয়ে ওঠার ঘটনা প্রবাহ জানা যাবে। প্রতিদিন রাত ১২টা ১ মিনিটে কুইজের ওয়েবসাইট এবং প্রিয়’র মোবাইল অ্যাপে একটি করে ঘটনা দেওয়া হয় এবং সেই ঘটনার প্রেক্ষাপটে একটি প্রশ্ন দেওয়া হয়। এতে করে যারা কুইজটিতে অংশ নিচ্ছেন, তাঁরা শুধু একটি প্রশ্নেরই উত্তর পাচ্ছেন না, বরং পুরো একটি ঘটনা সম্পর্কে জানতে পারছেন। বিপুল সংখ্যক মানুষকে বঙ্গবন্ধুর জীবনের এসব খুঁটিনাটি বিষয়গুলো জানানোই এ কুইজটির আসল উদ্দেশ্য।

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ প্রতিযোগিতার আজকের (২৯ ডিসেম্বর ২০২০) কুইজ: ১৯৫৪ সালে যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে জয়ী হয়ে শেখ মুজিবুর রহমান মন্ত্রীর দায়িত্ব পান। কিন্তু কয়েক দিন পরই যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রিসভা ভেঙে দেওয়া হয়। পরবর্তীতে ১৯৫৬ সালের ১৬ই সেপ্টেম্বর কোয়ালিশন সরকারের মন্ত্রী হন শেখ মুজিবুর রহমান। সাড়ে আট মাস পর ১৯৫৭ সালের ৩০শে মে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন তিনি। কেন পদত্যাগ করেছিলেন শেখ মুজিব?
≥ দলীয় মতবিরোধের কারণে
≥ শারীরিক অসুস্থতার কারণে
≥ সংগঠনকে শক্তিশালী করতে পূর্ণকালীন সময় দিতে
≥ পরিবারকে সময় দেওয়ার জন্য

গতকালের (২৮ ডিসেম্বর ২০২০) কুইজে অংশগ্রহণ করেছেন ১ লাখ ১৭৯ জন প্রতিযোগী এবং তাদের মধ্যে স্মার্টফোন বিজয়ী সৌভাগ্যবান ৫ জন হলেন: চট্টগ্রামের মামুন ভুঁইয়া, টাঙ্গাইলের মলি কিরিটি, কিশোরগঞ্জের হ্যাপি বণিক জুঁই, গাইবান্ধার মো. আখতারুজ্জামান, লালমনিরহাটের শহীদ আলী।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত