শিরোনাম:

ঝাড়বাতির সঙ্গে বিয়ে!

রাজকন্যা লতিফার অবিলম্বে মুক্তির দাবি জাতিসংঘের

অসহায়দের সহায়তায় ১০ কোটি টাকা অনুদান প্রধানমন্ত্রীর

মিসরের ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ২৩

‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম ৪ দিনের রিমান্ডে

ডিএসসিসির অভিযান: ২৫ মামলায় ২ লাখ টাকা জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ৮, ২০২০

শেয়ার করুন

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

এডিস মশার প্রজননস্থল শনাক্ত, অবৈধ স্থাপনা ও অবৈধ ক্যাবল অপসারণে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ২৫টি মামলা দায়েরসহ দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)।

অভিযানের ১৬তম দিনে করপোরেশনের তিনটি ভ্রাম্যমাণ আদালত অঞ্চল-১, ২ ও ৩ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এতে অঞ্চল-১ এর ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের রমনা এলাকায় করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মোহাম্মদ ফয়সালের নেতৃত্বাধীন আদালত ৩৮টি স্থাপনা পরিদর্শন করেন। এ সময় ৩টি স্থাপনায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ৩টি মামলা দায়ের করেন। অভিযানকালে তিনি ৩ মামলায় এক লাখ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

অঞ্চল-২ এর ১ নম্বর ওয়ার্ডের মালিবাগের প্রভাতিবাগ এলাকায় করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাজমুল আহসানের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত ২৫টি স্থাপনা পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি ৯টি স্থাপনায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ৯টি মামলা দায়ের ও নগদ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

একই সময়ে অঞ্চল-৩ এর ৪০ নম্বর ওয়ার্ডের ওয়ারী এলাকায় করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিধান কুমার মণ্ডলের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত ৪২টি স্থাপনা পরিদর্শন করেন। আদালত এ সময় ৩টি স্থাপনায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ৩টি মামলা দায়ের ও নগদ ১৭ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

এডিস মশার লার্ভা ও মশার প্রজননস্থল শনাক্তকরণে করপোরেশন পরিচালিত ৩ ভ্রাম্যমাণ আদালত সোমবার মোট ১০৫টি স্থাপনা পরিদর্শন করে ১৫টি মামলা দায়ের ও নগদ ১ লাখ ৮২ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

এদিকে, সোমবার ২০তম দিনে এলিফ্যান্ট রোডের বাটা সিগন্যাল হতে হাতিরপুল কাঁচা বাজার, ধানমন্ডি ১৫ নম্বর রোড হতে আজিমপুর এবং ঢাকা মেডিক্যালের সামনে হতে নগর ভবনের সামনের রাস্তার উভয় পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।

ডিএসসিসির সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত বাটা সিগন্যাল হতে হাতিরপুল কাঁচা বাজারের উভয়পাশে ফুটপাতের ওপর গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা ও অবৈধ কাঁচা বাজারের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এ সময় রাস্তার দুই পাশে অবৈধ স্থাপনা ও অবৈধ কাঁচা বাজার উচ্ছেদ করে ফুটপাত দখলমুক্ত করা হয়।

করপোরেশনের সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান একই সঙ্গে বাটা সিগন্যাল হতে হাতিরপুল কাঁচা বাজার হয়ে ইস্টার্ন প্লাজা পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশের অবৈধ ক্যাবল অপসারণ করেন। তিনি এ সময় ৫টি ইলেকট্রিক পোল হতে সব অবৈধ ক্যাবল অপসারণ করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিরুজ্জামান এ সময় ৭টি মামলা দায়ের ও ৮ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

এছাড়াও ডিএসসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ ধানমন্ডির ১৫ নম্বর রোড হতে আজিমপুর পর্যন্ত ঢাকা মেডিক্যালের সামনে হতে নগর ভবনের সামনের রাস্তার উভয়পাশে উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত