শিরোনাম:

করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে ঢাকার ১৭ থানা

‘পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত দূরপাল্লার পরিবহন বন্ধ থাকবে’

লকডাউনে বৃহত্তর স্বার্থে ঘরে থাকার আহ্বান কাদেরের

মিতা হকের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

না.গঞ্জে সহিংসতাকারীদের ধরতে পুলিশের বিশেষ কৌশল!

১৫ বছর পর এই প্রথম…

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : আগস্ট ১৬, ২০২০

ক্রীড়া ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

বড্ড নিষ্ঠুর সময়। ফুটবল প্রেমিদের রীতিমত কাঁদাচ্ছে। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দেশে বসেছে ইউয়েফার সর্বোচ্চ আসর চ‌্যাম্পিয়নস লিগ। অথচ চ‌্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলস্কোরার রোনালদোই নিজ দেশে খেলতে পারছেন না।

সময়ের আরেক সেরা লিওনেল মেসি। তাকে ছাড়া ফুটবল অকল্পনীয়। রেকর্ড ছয়বারের ব‌্যালন ডি অর জয়ী মেসিও নেই চ‌্যাম্পিয়নস লিগে। ভাবা যায়! ফুটবল বিশ্ব শেষ কবে এমন কিছু দেখেছিল? বর্ষ পঞ্জিকার পাতা উল্টে-পাল্টে জানা গেল ঠিক ১৫ বছর আগে চ‌্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে ছিলেন না মেসি ও রোনালদো।

সময়টা ছিল ২০০৪-০৫ আসর। এরপর প্রতিটি আসরের সেমিফাইনালে হয় মেসি ছিলেন, না হয় রোনালদো। দুইজনের শ্রেষ্ঠত্ব এতোটুকু পরিসংখ‌্যানেই কি স্পষ্ট নয়। শুক্রবার রাতে বার্সেলোনা শেষ আটের লড়াইয়ে জিততে পারেননি। বায়ার্ন মিউনিখ ৮-২ গোলে হারিয়েছে তাদের। এর আগে গত সপ্তাহে জুভেন্টাসের যাত্রা থামে শেষ ষোলোতে। পাশাপাশি ২০০৬-০৭-এর পর প্রথমবার শেষ চারে নেই স্প‌্যানিশ লিগের কোনো দল।

মেসি চারবার চ‌্যাম্পিয়নস ট্রফির শিরোপা জিতেছেন। তবে ২০১৪-১৫ এর পর একবারও শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পাননি। অন‌্যদিকে রোনালদো পাঁচবার এ শিরোপা জিতেছেন। চারবার রিয়ালের জার্সিতে, একবার ম‌্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সিতে। অথচ তারা কেউ এবার নেই। লিসবনের প্রতিটি রাত তাদের শূন‌্যতায় ভুগবে। ১৫ বছর পর তাদের ছাড়া ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতা তা কোনোভাবেই কল্পনা করা যায় না।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত