শিরোনাম:

নিলামে উঠেছে ম্যারাডোনার প্রথম বিশ্বকাপ জার্সি

আজ প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্য

বিশ্বকাপ দেখতে যাওয়া সবাইকে টিকা দেবে কাতার!

হেফাজতের ঢাকা মহানগর সভাপতি আল্লামা জুনায়েদ গ্রেফতার

আরও এক সপ্তাহ বাড়তে পারে লকডাউন

শামসুর রহমানের নৈপুণ্যে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে চট্টগ্রামের জয়

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : ডিসেম্বর ৯, ২০২০

ক্রীড়া ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে অবিশ্বাস্য জয় পেলো চট্টগ্রাম। দলের জয়ে শেষ দিকে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করেছেন জাতীয় দলে অনিয়মিত হয়ে যাওয়া তারকা ওপেনার শামসুর রহমান শুভ। তিনি ৩০ বলে পাঁচটি চার ও এক ছক্কায় অপরাজিত ৪৫ রান করেন।

মঙ্গলবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনার দেয়া ১৫৮ রানের টার্গেটে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি চট্টগ্রাম। ব্যক্তিগত ৪ রানেই লিটন দাস সাজঘরে ফেরেন। সৌম্য সরকারও তেমন সুবিধা করতে পারেনি খুলনার বিপক্ষে। ১৯ রানে সাকিবের বলে আউট হন সৌম্য।

দলীয় ৮০ রানেই টপ অর্ডারের চারজন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চট্টগ্রাম বেশ চাপে পরে যায়। মাহমুদুল হাসান ২৪ আর দলের ক্যাপ্টেন মিথুন ২৩ রানে আউট হলে দলের হাল ধরেন শামসুর রহমান। তার অপরাজিত ৪৫ রানের সুবাদে খুলনার বিপক্ষে ৩ উইকেটে জয় ছিনিয়ে নেয় চট্টগ্রাম।

এর আগে, চট্টগ্রামের বিপক্ষে শুরুটা বেশ ভালোই করেছিল জহুরুল ইসলাম এবং জাকির হাসান। দলীয় ৩৩ রানে নিজের ব্যক্তিগত ১৫ রানে শরিফুল ইসলামের বলে কট আউট হন জাকির হাসান। তিন নম্বরে মাঠে আসেন সাকিব আল হাসান। ৬ দশমিক ৬ ওভারে দলের ৫২ রানে ব্যক্তিগত ১৯ বলে ২৬ রান করে জহুরুল ইসলাম কট আউট হন শরিফুলের বলে।

সবাইকে চমকে দিয়ে মাহমুদউল্লাহ-কায়েসের আগেই চার নম্বরে ক্রিজে নামেন মাশরাফী। সাকিবের সাথে ভালো একটা জুটি করে দলকে ভালো একটা স্কোর উপহার দিতেই মাশরাফী চার নম্বরে মাঠে আসেন। কিন্তু ৭ দশমিক ৩ ওভারে দলীয় ৫৩ রানে ব্যক্তিগত ১ বলে ১ রান করে রান আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন মাশরাফী।

আজও সাকিব তার জাত চেনাতে পারেননি। ১৬ বলে ১৫ রান করে মোসাদ্দেকের বলে কট আউট হন সাকিব। তখন দলীয় স্কোর দাঁড়ায় ৪ উইকেট হারিয়ে ৬৬ রান।

৪ উইকেট হারিয়ে খুলনা বেশ বিপদেই পরে যায়। তখন দলের হাল ধরেন কায়েস আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দলকে বড় স্কোর করার দিকেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। কিন্তু ১৪ দশমিক ৪ ওভারে দলীয় ১০৯ রানে মোস্তাফিজের বলে ব্যক্তিগত ২৪ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন কায়েস। দলীয় ১১০ রানে মাহমুদউল্লাহ ব্যক্তিগত ১৬ বলে ২৬ রান করে শরিফুলের বলে কট আউট হয়ে যান। তখন খুলনা আরও সঙ্কটে পড়ে। ব্যক্তিগত ৫ রানে মোস্তাফিজের বলে আউট হন শামিম হোসাইন আর ৬ রান করে সাজঘরে ফেরেন আরিফুল হক।

শুভগত হোমের অপরাজিত ১৪ বলে ৩২ রানের ঝড়ো ইনিংসে খুলনার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯ উইকেট হারিয়ে ১৫৭।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
খুলনা: ২০ ওভারে ১৫৭/৯ ( জহুরুল ইসলাম ২৬, জাকির হাসান ১৫, সাকিব ১৫, কায়েস ২৪, মাহমুদউল্লাহ ২৬, শুভগত হোম ৩২*, শরিফুল ইসলাম ৩/৩৪, মোস্তাফিজ ২/৩৬)।

চট্টগ্রাম: ২০ ওভারে ১৬২/৭ (সৌম্য সরকার ১৯, মাহমুদুল হাসান জয় ২৪, মিঠুন ২৩, শামসুর রহমান ৪৫*, সাকিব আল হাসান ২/৩০, শুভগত হোম ২/৩৪, মাশরাফী ১/২৮)।
ফলাফল- চট্টগ্রাম ৩ উইকেটে জয়ী

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত