শিরোনাম:

আফগানিস্তানে তারাবির নামাজে গুলি, নিহত ৮

৩৬ লাখ কৃষক-শ্রমিককে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

টানা তৃতীয় দিন দেশে করোনায় শতাধিক মৃত্যু

২৩ হাজার বন্দিকে মুক্তি দিল মিয়ানমার

‘লকডাউনে ১ কোটি ২৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার’

তামিমের আনন্দ, আক্ষেপ

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : জানুয়ারি ২৬, ২০২১

ক্রীড়া ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

প্রতিপক্ষ যেমন-ই হোক, তাদের উড়িয়ে দেওয়ার আনন্দ থাকে সব সময়। স্মৃতিতে জমা হয়ে থাকে ভালো মুহূর্ত। তামিম ইকবালের হৃদয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৩-০ ব্যবধানে হারানোর সুখস্মৃতি সব সময় থাকবে তরতাজা। সঙ্গে থাকবে একটু আক্ষেপও।

হোয়াইটওয়াশ করার আনন্দের সঙ্গে কোনো বড় ইনিংস না আসার আক্ষেপ রয়েছে নতুন দলনেতার। বোলিংয়ে সব ঠিকঠাক হলেও ঈর্ষণীয় ফিগার নেই। আবার দলগত পারফরম্যান্সে অধিনায়ক পুরো দলকেই দিয়েছেন শত মার্ক।

ম্যাচ শেষে গণমাধ্যমে নিজের আনন্দ ও আক্ষেপ ভাগাভাগি করেন তামিম ইকবাল। রাইজিংবিডির পাঠকদের জন্য সেগুলো তুলে ধরা হলো—

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করার আনন্দ অবশ্যই আছে। তবে সিরিজ থেকে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি কি?
তামিম ইকবাল: যেভাবে আমরা ক্রিকেট খেলেছি খুব ভালো ছিল। সত্যি কথা বলতে মূল যে বিষয়টি আমি লক্ষ্য করেছি ভালো করার যে ক্ষুধাটা ড্রেসিং রুমে ছিল, তা তিন ম্যাচেই ছিল। এমন হয়নি যে গত দুই ম্যাচ জিতে যাওয়ার পরে আজ দলের কেউ তেমন স্বস্তিতে ছিল, এমন কিছু না। আমরা জানতাম যে এখন পয়েন্ট প্রক্রিয়া। আমাদের কোয়ালিফাইং খেলতে হবে কি হবে না এটা নিয়ে একটা ইস্যু থাকে। তাই প্রতিটা ম্যাচই খুব গুরুত্বপূর্ণ। সব ওয়ানডে ম্যাচই খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাই যে ক্ষুধা ছিল আমি খুব খুশি।

দলগত পারফরম্যান্স কতোটা তৃপ্ত? ব্যাটিং, বোলিং, সব কিছুইতে সম্মিলিত পারফরম্যান্স ছিল?
তামিম ইকবাল: খুশি অবশ্যই। একটা জিনিস দেখেন ক্রিকেটে উন্নতির জায়গা সবসময়ই থেকে যায়। আজকে একটা সুযোগ ছিল আমাদের দুইজনের মধ্যে একজনের সেঞ্চুরি করার। এগুলা যদি হতো তাইলে পরিপূর্ণ খেলা বলতে পারতাম। আমি ৬৪ করে আউট হয়ে গেলাম, সাকিব ৫০ করে আউট হয়ে গেলো, মুশফিক দেরিতে আসায় ওর হাতে হয়তো ওতো ওভার ছিল না। এগুলো যদি এখন আমরা কাটিয়ে উঠতে পারি তাহলে হবে কি যখন আমরা বিদেশে যাবো তখন এগুলো সাহায্য করবে। আমরা সিরিজ জিতেছি এবং দাপটের সঙ্গে জিতেছি তাই কোন অভিযোগ নেই।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত