শিরোনাম:

রাস্তার ময়লা তুলে বাসার গেটে রেখে গেলেন মেয়র আতিক

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের নতুন ভেন্যু চূড়ান্ত

ইউনাইটেড এয়ারকে সহায়তা দিতে বেবিচককে অনুরোধ বিএসইসির

খিলক্ষেতে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার

কাদের মির্জার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাকে মারধরের অভিযোগ

২৩ হাজারের বেশি বন্দি মুক্তি পাচ্ছে মিয়ানমারে

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

২৩ হাজারেরও বেশি বন্দির সাজা মওকুফ করেছে মিয়ানমারের সামরিক জান্তা। সাধারণ ছুটির দিন শুক্রবার রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমে সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং এই ঘোষণা দেন বলে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। ঘোষণায় বলা হয়েছে, মিয়ানমার যখন শন্তি, উন্নয়ন ও শৃঙ্খলাসহ একটি নতুন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করছে তখন বন্দিদের নির্দিষ্টভাবে ভদ্র নাগরিক হিসেবে পরিণত করতে, জনগণকে সন্তুষ্ট করতে এবং মানবিক ও সহানুভূতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করতে বন্দিদের সাজা মওকুফ করা হয়েছে। এতে বলা হয়, মিয়ানমারের ২৩ হাজার ৩১৪ জন এবং বিদেশি ৫৫ জন বন্দির সাজা মওকুফ করা হয়েছে।

মিয়ানমারে গত ৮ নভেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় পায় অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি)। পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য যেখানে ৩২২টি আসনই যথেষ্ট, সেখানে এনএলডি পেয়েছিল ৩৪৬টি আসন।

এনএলডি নিরঙ্কশ জয় পেলেও সেনাবাহিনী সমর্থিত দল ইউনিয়ন সলিডারিটি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (ইউএসডিপি) ভোটে প্রতারণার অভিযোগ তুলে ফলাফল মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছিল। তারা নতুন করে নির্বাচন আয়োজনের দাবি তোলে। যদিও ইউএসডিপি ৭১টি আসনে জয় পেয়েছে।

গত পহেলা ফেব্রুয়ারি থেকে নতুন পার্লামেন্টের অধিবেশন শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে ওইদিন ভোরে স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি ও দেশটির প্রেসিডেন্টসহ এনএলডির শীর্ষ বেশ কিছু নেতাকে গ্রেফতারের পর এক বছরের জন্য মিয়ানমারে জরুরি অবস্থা জারি করে সেনাবাহিনী।

সেনাবাহিনীর ক্ষমতা গ্রহণের পর গণতান্ত্রিক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর ও গ্রেফতার নেতাদের মুক্তির দাবিতে আন্দোলনে নামে সাধারণ মানুষ। কিছু এলাকায় বলপ্রয়োগ করেছে কর্তৃপক্ষ।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত