শিরোনাম:

আফগানিস্তানে তারাবির নামাজে গুলি, নিহত ৮

৩৬ লাখ কৃষক-শ্রমিককে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

টানা তৃতীয় দিন দেশে করোনায় শতাধিক মৃত্যু

২৩ হাজার বন্দিকে মুক্তি দিল মিয়ানমার

‘লকডাউনে ১ কোটি ২৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার’

সেনাবাহিনীকে ১১৮টি ট্যাংক উপহার দিলেন মোদী

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

ভারতে তৈরি অর্জুন সামরিক ট্যাংক দেশটির সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) চেন্নাইয়ে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনীকে ১১৮টি অর্জুন ট্যাংক উপহার দেন তিনি। ডাক দেন ‘আত্মনির্ভর ভারত’ গড়ার।

সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে ৮৪০০ কোটি রুপি ব্যয়ে তৈরি হয়েছে এসব ট্যাংক। স্থলভাগের সম্মুখ সমরে ভারতের মাটি আরও বেশি মজবুত করবে অর্জুন। ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু-কাশ্মিরের পুলওয়ামায় কনভয় বিস্ফোরণে ৪০ জন ভারতীয় জওয়ান নিহত হয়। ট্যাংক হস্তান্তরের জন্য এই দিনটিকেই বেছে নিলেন মোদী।

হস্তান্তর অনুষ্ঠানে মোদি বলেন, ‘তামিলনাড়ু এরইমধ্যে ভারতের অটোমোবাইল প্রস্তুতকারক হাব হয়ে উঠেছে। এখন দেখছি এই রাজ্য ট্যাংক তৈরিরও হাব হয়ে উঠছে। দুটি ডিফেন্স করিডোরের মধ্যে তামিলনাড়ু একটি। এই করিডোর ইতোমধ্যে আট হাজার ১০০ কোটি রুপি বিনিয়োগে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আজ আমি গর্বের সঙ্গে আরও এক যোদ্ধাকে দেশের জন্য উৎসর্গ করছি। যা আমাদের সীমান্ত রক্ষা করবে।’

টুইটারে দেওয়া পোস্টে মোদী বলেন, ‘‌প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে আমাদের ভারতকে আত্মনির্ভর করে তোলার যাত্রায় আজ এক বিশেষ দিন। অর্জুন যুদ্ধ ট্যাংক সেনাদের হাতে তুলে দিলাম। তামিলনাড়ুতে তৈরি হওয়া ট্যাংক আমাদের সীমান্ত রক্ষা করবে। এটাই ভারতের একতা দর্শনের ছবি।’

অর্জুন ট্যাংকের নকশা ও নির্মাণ পুরোটাই হয়েছে ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন ওরফে ডিআরডিও-র তত্ত্বাবধানে। এরইমধ্যে ভারতের কাছে ১২৪টি প্রথম ব্যাচের অর্জুন রয়েছে। অর্জুনের নকশা করেছে ডিআরডিও-র কম্ব্যাট ভেহিকেলস রিসার্চ অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট ইস্টাব্লিশমেন্ট এবং সতীশ রেড্ডি। এগুলো তৈরি হয়েছে তামিলনাড়ুর আবাদিতে অবস্থিত অর্ডন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডের হেভি ভেহিকেলস ফ্যাক্টরিতে।

অর্জুনকে বলা হচ্ছে উন্নত অগ্নিশক্তি, উচ্চ গতিশীলতা এবং দুর্দান্ত সুরক্ষাসহ একটি অত্যাধুনিক ট্যাংক। এতে একটি কম্পিউটার-নিয়ন্ত্রিত ইন্টিগ্রেটেড ফায়ার কন্ট্রোল সিস্টেম রয়েছে, যা স্থির দর্শনসহ সব ধরনের আলোতে কাজ করে। ৭ দশমিক ৬২ মিমি মেশিনগান এবং অ্যান্টি-এয়ারক্রাফ্ট ও স্থল টার্গেটগুলোর জন্য একটি ১২ দশমিক ৭ মিমি মেশিনগান অন্তর্ভুক্ত রয়েছে এতে।

পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
  • সর্বাধিক পঠিত