শিরোনাম:

আফগানিস্তানে মসজিদে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ১২

ডিএনসিসি হাসপাতালে করোনার ‘ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট’ রোগী শনাক্ত

গাড়ি কিনতে দেড় লাখ টাকায় সন্তান বিক্রি!

জয়ার ‘ম্যাংগো শাড়ি’

বিভিন্ন অধিদপ্তরে জনবল নিয়োগে পিএসসির বিজ্ঞপ্তি

নিজ আসনে হেরে যাওয়া মমতা কি মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন?

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : মে ৩, ২০২১

শেয়ার করুন

পশ্চিমবঙ্গে টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠনের পথে বেশ এগিয়ে আছে তৃণমূল কংগ্রেস। বাংলার ২৯২টি আসনের মধ্যে ইতোমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল ২১৩টি আসনে জয়লাভ করেছে। কিন্তু নিজ আসন নন্দীগ্রামে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) শুভেন্দু অধিকারীর কাছে হেরে গেছেন মমতা। তাতে কংগ্রেস সরকার গঠন করলেও নেত্রী মমতা মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন কিনা সেটা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা-কল্পনা।

তবে ভারতীয় সংবিধানের অনুচ্ছেদ ১৬৩ ও ১৬৪ অনুযায়ী ভোটে হেরে গেলেও মমতার মুখ্যমন্ত্রী হতে বাঁধা নেই। কারণ, নির্বাচিত প্রতিনিধিরাই মূখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করবেন। সেক্ষেত্রে মমতাই যে হতে যাচ্ছেন তৃতীয় মেয়াদের মুখ্যমন্ত্রী সেটা অনুমেয়।

কারণ, মুখ্যমন্ত্রী হতে সংবিধানে উল্লেখিত যোগ্যতা হলো— তাকে অবশ্যই ভারতের নাগরিক হতে হবে, বয়স ২৫ এর উর্ধ্বে হতে হবে, সুস্থ মস্তিস্কের হতে হবে এবং বিধানসভার সদস্য হতে হবে। এর মধ্যে তিনটা যোগ্যতা মমতার রয়েছে।

এখন মমতা যেহেতু নির্বাচনে হেরে গেছেন এবং তার দলের নির্বাচিত সদস্যরা তাকে নেতা নির্বাচিত করতে পারবেন এবং তিনি মুখ্যমন্ত্রীও হতে পারবেন।

তবে সংবিধান অনুযায়ী হেরে যাওয়া কিংবা সুস্থ্য স্বাভাবিক কোনো সাধারণ ব্যক্তি মুখ্যমন্ত্রী পদে ৬ মাসের অধিক সময় থাকতে চাইলে তাকে কোনো একটি আসন থেকে ১৮০ দিনের মধ্যে জয়লাভ করে আসতে হবে। সেটা দুইভাবে হতে পারে। প্রথমত, যদি কোনো খালি আসন থাকে সেখান থেকে নির্বাচন করে। আর দ্বিতীয়ত, যদি কোনো খালি আসন না থাকে তাহলে তার দলের মধ্য থেকে একজন সদস্য নিজ আসন থেকে পদত্যাগ করে সেই আসন থেকে নেতাকে নির্বাচন করার সুযোগ করে দিয়ে ও নির্বাচিত করে এনে।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত