শিরোনাম:

জয়ার ‘ম্যাংগো শাড়ি’

বিভিন্ন অধিদপ্তরে জনবল নিয়োগে পিএসসির বিজ্ঞপ্তি

কোয়ারেন্টাইনে সাকিব-মোস্তাফিজের ঈদ

শেষ বৈশাখে রাজশাহী ঢেকেছে শীতের কুয়াশায়!

ঈদে সালমানের বিরিয়ানির অপেক্ষায় থাকেন শাহরুখ

চিতার লেলিহান আগুন ছুঁয়েছে দিল্লির আকাশ

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত : এপ্রিল ২৪, ২০২১

শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

ভারতে আবারও একদিনে করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড হয়েছে। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে শনাক্ত হয়েছে রেকর্ড প্রায় সাড়ে ৩ লাখ এবং মারা গেছে ২৬শ’র বেশি।

এর মধ্যে দিল্লিতেই মৃত্যু হয়েছে ১৩ হাজারের বেশি মানুষের।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) ভারতে একদিনে নতুন করে দেশে ৩ লাখ ৩২ হাজার ৭৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে দিল্লিতেই নতুন আক্রান্ত ২৬ হাজার ১৬৯ জন। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) রাতে পাওয়া তথ্যানুযায়ী, দিল্লিতে একদিনে ৩০৬ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।  এই পরিস্থিতিতে জনবসতিপূর্ণ এলাকার পাশে গণচিতার ছবি সামনে এসেছে।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও আনন্দবাজার পত্রিকা এ খবর দিয়েছে। শুধু শ্মশানই নয়, দেশটির রাজধানীর কবরস্থানগুলোর অবস্থাও একই রকম। মরদেহ সমাহিত করার জায়গা পেতে হিমশিম খাচ্ছে করোনায় মৃতের পরিবারগুলো। অতিমারির তাণ্ডবে শ্মশানে চিতার সারি। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ধরা পড়েছে একই ছবি। দিল্লির এক শ্মশানে চলছে কোভিডে মৃত রোগীর শেষকৃত্যের প্রস্তুতি।
রাঁচির স্বর্ণরেখা শ্মশানঘাটে শেষকৃত্যের অপেক্ষায় সারিবদ্ধ নিথর দেহ। শেষ বারের মতো তাদের দেখতেও পারেননি প্রিয়জনরা। কানপুরের ভৈরবঘাট শ্মশানে জ্বলছে অসংখ্য চিতা। দাহ হচ্ছে কোভিডে মৃত রোগীদের দেহ। গাজিয়াবাদের হিন্দনঘাট শ্মশানে প্রকাশ্যেই পর পর রাখা আছে দেহগুলি। অতিমারির সঙ্গে যুদ্ধে তারা পরাজিত।
বারাণসীর মণিকর্নিকা ঘাটেও একই ছবি। গঙ্গার কিনারায় একের পর এক চিতা জ্বলছে।
দিল্লির এক শ্মশানে চিতার লেলিহান আগুন প্রায় আকাশ ছুঁয়েছে। সৎকার করা হচ্ছে অতিমারিতে প্রাণ হারানো অসংখ্য মানুষের।
স্বাস্থ্যকর্মী এবং মৃতের পরিজনরা পিপিই পরেছেন। স্বজন হারানোর এই ছবি জম্মুর।
মহারাষ্ট্রের এক শ্মশানঘাটে পর পর চিতায় পঞ্চভূতে বিলীন হয়ে যাচ্ছে কোভিডে মৃতদের নশ্বর দেহ।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত