ঢাবির গবেষণা সংকট দূর করতে উদ্যোগ নিতে পারেন অ্যালামনাইরা

43

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যে গবেষণা সংকট চলছে তা দূর করার জন্য বিদেশে অবস্থানরত অ্যালমনাইরা উদ্যোগ নিতে পারে বলে মনে করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান নওফেল।

যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাইদের সংগঠন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবের উদ্যোগে আয়োজিত ‘শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জন ও সংকট’ শীর্ষক গ্লোবাল ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ অভিমত প্রকাশ করেন।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) সংগঠনটির পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে অনিয়মের অভিযোগ আসলেও স্বায়ত্তশাসিত হওয়ার কারণে সরকার কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে পারে না। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যে গবেষণা সংকট রয়েছে সেই সংকট দূর করতে বিদেশে বসবাসরত অ্যালামনাইরা উদ্যোগ নিতে পারেন। উন্নত দেশের শ্রেষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গবেষণায় বরাদ্দের অনুদান আসে করপোরেট ফান্ডিং এবং  অ্যালামনাইদের অনুদান থেকে। বাংলাদেশে যেহেতু করপোরেট ফান্ডিংয়ের কালচার গড়ে উঠেনি তাই বিদেশে বসবাসরত অ্যালামনাইরা সেই উদ্যোগ নিতে পারেন। এসময় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাইদের ৫ হাজার ডলার করে ১ লাখ অ্যালামনাইকে এন্ডালমেন্ট ফান্ডে অনুদান দেওয়ার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, বিদেশে অবস্থানরত অ্যালামনাইরা যেন তাদের মেধা ও দক্ষতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কাজে লাগাতে পারেন সেজন্য প্রয়োজন হলে বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্চ প্রফেসর পদ সৃষ্টি করে তাদের স্বাগত জানানো হবে। এ ধরনের কোলাবোরেশন বিশ্ববিদ্যালয়ের র্যাংকিং উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলেও মনে করেন তিনি।

এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) প্রফেসর এএসএম মাকসুদ কামাল, সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ডক্টর এএসএম আমানউল্লাহ, অস্ট্রেলিয়ার মোনাস বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষণারত ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নীলিমা আক্তার, কমিউনিকেশন্স ও ডিসঅর্ডার বিভাগের চেয়ারপার্সন শান্তা তাওহিদা, এমআইটি সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র লেকচারার ড. তুষার কান্তি দাশ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন সাংবাদিক ও গবেষক তানভীর আহমেদ।

You might also like