রাজশাহীতে ড্রেনে ভাসছে টাকা

98

রাজশাহী ব্যুরো চীফঃ সোনারদেশ২৪:

ড্রেনে টাকা ভেসে যাচ্ছে। খবর পেয়ে ভিড় করেছে মানুষ। কেউ কেউ টাকা কুড়াতে ড্রেনে নেমেও পড়েছেন। একজন পেয়েও গেলেন ৫০০ টাকার একটি নোট! তার দেখাদেখি আরও কয়েকজন নেমে পড়লেন।

শনিবার (২২ আগস্ট) দুপুরে রাজশাহী রেলওয়ে অফিসার্স মেস ভবনের সামনের ড্রেনে এভাবে টাকা কুড়াতে দেখা গেছে মানুষজনকে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ড্রেনে এক হাজার, ৫০০, ১০০, ২০, ১০ এবং ৫ টাকার নোট পাওয়া গেছে।

ভাংড়ি বিক্রেতা টুলু জানান, টাকাগুলো অফিসার্স মেসের পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে চলে যাচ্ছিলো। ড্রেনে ভাসতে দেখে ড্রেনে নেমে বেশ কিছু টাকা কুড়িয়েছেন তিনি।

এদিকে খবর শুনে পুলিশ এবং গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাও ড্রেনের কাছে ছুটে যান।

নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। টাকা কোথা থেকে এলো তা নিয়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। পরে রহস্য জানা গেছে।

টাকাগুলো রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপের। সেগুলো পুরনো কাগজপত্রের ভেতর ছিলো। নগরীর শিরোইল এলাকায় সড়ক পরিবহন গ্রুপের কার্যালয়। বেখেয়ালে পুরনো কাগজের সঙ্গে টাকাগুলোও ফেলে দেওয়া হয়েছিলো।

রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক টিটো বলেন, ‘‘আমরা খুবই বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে গেছি। ভাবতেই পারিনি পুরনো কাগজের ভেতর টাকা থাকতে পারে। কাগজগুলো ২০১০ সালের আগের। পঁচে গেছে। পোড়ানোর উপায় নেই। তাই ড্রেনে ফেলে দেওয়া হয়। পরে ড্রেনে টাকা পাওয়ার খবর শুনে আমরাও সেখানে যাই।

‘সব মিলিয়ে দুই-তিন হাজার টাকা থাকতে পারে। কিন্তু খবর ছড়িয়েছে লাখ লাখ টাকা।”

You might also like