অন্যদুনিয়াঃ ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

চীনকে বলা হয় পৃথিবীর সবচেয়ে রহস্যময় দেশ। আয়তনের বিশালতা ও বৈচিত্রময় ভূপ্রকৃতির জন্য এর কোনায় কোনায় লুকিয়ে রয়েছে অবাক হওয়ার মতো সব বিষয়। চীনা আশ্চর্যের দীর্ঘ এই তালিকায় মশাবিহীন গ্রামও রয়েছে।

গ্রামের বর্ণনায় যাওয়ার আগে একটি প্রশ্ন দিয়ে শুরু করা যাক, পৃথিবীতে কোথায় মশা নেই? বিশেষজ্ঞদের তথ্যমতে, জনমানবহীন মেরু অঞ্চল বাদে পৃথিবীর প্রায় সব স্থানেই কম বেশি মশা রয়েছে। তবে এই দিক থেকে ব্যতিক্রম চীনের ফুজিয়ান প্রদেশের উইলিং গ্রাম। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৭০০ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত এই গ্রামের বাসিন্দারা মশা দেখেনি গত কয়েক দশকে।

২০১৬ সালে সর্বপ্রথম গ্রামটি নিয়ে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর তা চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ধীর গতিতে হলেও পরে গ্রামটি নিয়ে বিশ্ব গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। চলতি মাসে আবারো গ্রামটির নাম সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে মশা বিশেষজ্ঞরা বেশ কয়েকবার গ্রামটি পরিদর্শন করেছেন। কিন্তু কী কারণে সেখানে মশা নেই এর সঠিক ব্যাখ্যা তারা দিতে পারেননি। তবে বিশেষজ্ঞদের কাছে কোনো উত্তর না থাকলেও স্থানীয় বাসিন্দাদের কিছু অংশ বিশ্বাস করে, গ্রামের সীমানায় একটি পাথর পূজা করার কারণে দেবতার আশীর্বাদে তাদের গ্রাম মশা মুক্ত। আরেক দল লোকের বিশ্বাস, গ্রামের বাসিন্দারা অতি মাত্রায় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হওয়ায় তাদের গ্রামে মশা নেই।

চীনা সংবাদপত্র পিপলস ডেইলির রিপোর্টার ডিং সম্প্রতি গ্রামটি পরিদর্শন করেছেন। তার ভাষ্যমতে, সেখানকার বাসিন্দারা খুবই সচেতন। তারা গ্রামটি সব সময় পরিষ্কার রাখেন। গ্রামের ভিতর কোথাও ময়লা দেখা যায় না। তিনি মনে করেন, সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে উচ্চতা এবং অতি মাত্রায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কারণে এই গ্রাম মশা মুক্ত।