প্লাস্টিকের বিকল্প হতে পারে পাট: পরিকল্পনামন্ত্রী

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, হস্তশিল্পের প্রসার ঘটাতে হবে। হাতের কাজ করা যেকোনো জিনিস দেখতে সুন্দর লাগে। এ ধরনের জিনিস দেখলেই মন ভরে যায়। এটাই তো মূল শিল্প। আর এটা যদি পাটের হয়, তাহলে তো কথাই নেই। আমরা চাই পাট ফিরে আসুক। আর একটি দিক হলো, প্লাস্টিক আমাদের ভীষণ ক্ষতি করছে। পাটই এই প্লাস্টিকের বিকল্প হতে পারে।

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর ইস্টার্ন প্লাজার দ্বিতীয় তলায় জারমার্টজ লিমিটেডের পাটপণ্য বিক্রয়কেন্দ্র উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জারমার্টজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইসমাত জেরিন খান, চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নূর উল মতিন জ্যোতি এবং এসএমই ফাউন্ডেশনের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) শাহিন আনোয়ার প্রমুখ।

এম এ মান্নান বলেন, শুধু আমাদের নয়, সারা বিশ্বেই পাটশিল্প ছড়িয়ে দিতে হবে। প্লাস্টিকের ভালো বিকল্প হতে পারে পাট। আজকে যে বিক্রয়কেন্দ্র দেওয়া হয়েছে, এ ধরনের কাজে আমাদের সরকার, বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী খুবই উৎসাহ দেন। আমরা এর জন্য নানা ধরনের সহায়তা দিচ্ছি।

‘আমরা চাই পাটের বহুমুখী পণ্য তৈরিতে প্রাইভেট সেক্টরগুলো এভাবে এগিয়ে আসুক। আমরা তাদের নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেব,’ যোগ করেন মন্ত্রী।

ইস্টার্ন প্লাজার ২/২৯ নম্বর দোকানে বহুমুখী পাটপণ্যের বিক্রয়কেন্দ্রে রয়েছে পাটের শাড়ি, পাটের তৈরি ব্যাগ, বাহারি ডিজাইনের টেবিল ম্যাট, বাস্কেট, গিফট আইটেমসহ নানা পণ্য।

জারমার্টজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইসমাত জেরিন খান বলেন, আমরা পাটের বহুমুখী পণ্য রপ্তানি করি। আমরা চাই দেশের মানুষ পাটের পণ্যের ব্যবহার বাড়াক। এটা আমাদের প্রথম বিক্রয়কেন্দ্র। পর্যায়ক্রমে গুলশান, বনানীসহ প্রতিটি জেলায় জারমার্টজ লিমিটেডের শোরুম নেওয়ার পরিকল্পনা আমাদের আছে। আমরা সারাদেশে পাটের পণ্য ছড়িয়ে দিতে চাই।