সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

ধান কাটার শ্রমিকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে হাওর এলাকায় চলাচল নির্বিঘ্ন করার অনুরোধ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) কৃষি মন্ত্রণালয় থেকে এ তথ্য জানানো হয়। হাওর এলাকায় বোরো ধান কাটার সময় হয়েছে।  এ সময়ে উত্তরবঙ্গসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে শ্রমিকরা হাওর এলাকায় ধান কাটার জন্য আসতে শুরু করবেন।  ধান কাটার শ্রমিকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে হাওর এলাকায় আগমন ও চলাচল  নির্বিঘ্ন করতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ করা হলো। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটিকালীন সময়ে হাওর এলাকায় ধান কাটাসহ সারা দেশে কৃষি উৎপাদন ও বিপণন অব্যাহত রাখতে বৃহস্পতিবার কৃষি মন্ত্রণালয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরকে মাঠ পর্যায়ে এসব নির্দেশনা বাস্তবায়ন ও অনুসরণ করতে বলেছে।

এছাড়াও, হাওর এলাকায় ধান কর্তন ও চলাচলে  করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি হ্রাসে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের  নিজের, কৃষকের ও শ্রমিকের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সরকারের নির্দেশনাসমূহ যথাযথভাবে পালন করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যানুসারে সারা দেশে এ বছর বোরো ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা হলো ২ কোটি ০৪  লাখ ৩৬ হাজার মেট্রিক টন।  এ লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ২০ ভাগের যোগান দেয় হাওরাঞ্চলের বোরো ধান। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হিসেব মতে, এবার হাওরের সাত জেলায়  (কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা, সুনামগঞ্জ, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ ও ব্রাক্ষণবাড়িয়ায়) বোরো আবাদ হয়েছে ৯ লাখ ৩৬ হাজার হেক্টর জমিতে এবং শুধু হাওরে ৪ লাখ ৪৫ হাজার হেক্টর জমিতে। হাওরাঞ্চলে বোরো ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৭ লাখ ৪৫ হাজার মেট্রিক টন।