ধর্ষণ-পুড়িয়ে হত্যায় অভিযুক্ত ৪ যুবক পুলিশের গুলিতে নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সোনারদেশ২৪:

ভারতের তেলেঙ্গানায় পুলিশের হেফাজত থেকে পালাতে গিয়ে গুলিতে নিহত হয়েছেন চার আসামি। তারা সম্প্রতি এক পশু চিকিৎসককে গণধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যায় অভিযুক্ত ছিলেন। মূলত তদন্তের জন্য তাদের ঘটনাস্থলে নিয়ে গিয়েছিল স্থানীয় সাইবারাবাদ পুলিশ।

শুক্রবার (০৬ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় ভোরে রাজ্যটির মাহাবুবনগর জেলার চাটানপালিতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, গত সপ্তাহে (২৮ নভেম্বর) আগুনে পোড়া অবস্থায় এক তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে প্রাথমিক তদন্তে পাওয়া যায়, ওই তরুণী চিকিৎসককে গণধর্ষণের পর আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় দেশজুড়ে আলোচনার সৃষ্টি হয়। এরপর গত ৩০ নভেম্বর এই চারজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ভোরে মামলাটির তদন্তের জন্য চার অভিযুক্তকে ঘটনাস্থলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তারা পুলিশের হেফাজত থেকে পালানোর চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ গুলি চালাতে বাধ্য হয়।

গুলিতে নিহতরা হলেন- মোহাম্মদ আরিফ (২৬), জল্লু শিবা (২০), জল্লু নবীন (২০) ও চিন্তাকুন্টু চেন্নাকেসাভুলু (২০)। তারা ওই নারী চিকিৎসককে ধর্ষণের পর হত্যা করে তার দেহ আগুনে পুড়িয়ে দেন বলে পুলিশের কাছে দায় স্বীকার করেছিলেন।

হায়দ্রাবাদ পুলিশ কমিশনার অঞ্জনি কুমার জানিয়েছেন, পুলিশ হেফাজত থেকে পালাতে চেষ্টা করেছিলেন চার যুবক। পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হন।