আন্তর্জাতিক ডেস্ক, সোনারদেশ২৪:

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে ইরান। এছাড়াও ডজনেরও বেশি ট্রাম্পের অনুসারীর নামও রয়েছে ওই তালিকায়। মূলত দেশটির সেনাবাহিনীর কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাশেম সোলাইমানিকে বাগদাদে ড্রোন হামলা চালিয়ে হত্যা করার অভিযোগে এই পরোয়ানা জারি করা হয়।

এই কাজে ইন্টারপোলেরও সহযোগিতা চেয়েছে ইরান। আধা-সরকারী সংবাদ সংস্থা আইএসএনএ’র বরাত দিয়ে এমন খবর প্রকাশ করেছে আলজাজিরা।

২৯ জুন, সোমবার তেহরানের প্রসিকিউটর আলী আলকাশিমিহের বলেন, গত ৩ জানুয়ারি জেনারেল কাশেম সোলাইমানি হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার জন্য ট্রাম্পসহ আরো ৩০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে ইরান। তাদের বিরুদ্ধে ‘হত্যা ও সন্ত্রাসবাদের’ অভিযোগ আনা হয়েছে।

তবে আলকাশিমিহের ট্রাম্প ছাড়া আর কারো নাম উল্লেখ করননি। তবে জোর দিয়ে বলেন, ট্রাম্পের রাষ্ট্রপতির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও এই মামলা চালিয়ে যাবে ইরান।

তবে এই বিষয়ে কথা বলার জন্য ফ্রান্সে অবস্থিত ইন্টারপোলের অফিসে যোগাযোগ করা হলেও সংস্থাটি এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।

প্রসঙ্গত, ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের বিমানবন্দরের কাছে ইরানি জেনারেল কাশেম সোলাইমানির গাড়িবহরে বিমান হামলা করে যুক্তরাষ্ট্র। ওই হামলায় ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান সোলেইমানি এবং ইরাকের আধা সামরিক বাহিনী প্রধান মুহান্দিস। সোলেইমানির মত গুরুত্বপূর্ণ একজন জেনারেলের হত্যার প্রতিশোধ নেয়ার অঙ্গীকার করে ইরানি নেতারা।