সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জামা, জুতা ও ব্যাগ কেনার জন্য বছরের শুরুতে এক হাজার করে টাকা দেবে।

মঙ্গলবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর প্রকাশিত আদেশে প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তির প্রকল্পের মেয়াদ ২০২১ সাল পর্যন্ত বাড়িয়ে যে আদেশ জারি করেছে সেখানে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

সেই আদেশে বলা হয়েছে, প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি প্রদান প্রকল্পের তৃতীয় পর্যায়ের দ্বিতীয় সংশোধনী প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়েছেন।

সরকার করোনাকালীন সময়ে প্রান্তিক জনগণের মধ্যে গত জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত তৃতীয় ও চতুর্থ কিস্তির উপবৃত্তির অর্থ একসাথে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বছরের প্রথমেই প্রতি শিক্ষার্থীকে জামা, জুতা ও ব্যাগ কিনতে এক হাজার টাকা করে কিউ অ্যালাউন্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আগামী ১৪ মের মধ্যে অবশ্যই গত জানুয়ারি থেকে জুন মাস এই ছয় মাসের উপবৃত্তির অর্থ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে বিতরণের জন্য সুবিধাভোগীদের তথ্য রূপালী ব্যাংক, শিউরক্যাশের পোর্টালে আপলোড করার জন্য উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের অনুরোধ করা হয়েছে।

‘সরকার ঈদের আগেই উপবৃত্তির অর্থ সুবিধাভোগীদের মোবাইলে পাঠাতে ইচ্ছুক’ উল্লেখ করে আদেশে বলা হয়েছে, সুবিধাভোগীদের প্রয়োজনীয় তথ্য ১৪ মে’র মধ্যে রূপালী ব্যাংকের পোর্টালে আপলোড করতে ব্যর্থ হলে সংশ্লিষ্ট উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দীর্ঘদিন ধরে প্রাথমিকের প্রায় এক কোটি ৪০ লাখ শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির অর্থ আটকে ছিল। এখন রোজার ঈদের আগেই ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা এক সঙ্গে উপবৃত্তির ছয় মাসের টাকা পাবে।