দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ সোনারদেশ২৪:

তিন লাখ টাকার চাঁদাবাজির মামলায় আওয়ামী লীগের সভাপতি ময়নুল ইসলামকে (৪৭) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) তাকে দিনাজপুর জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম।

ময়নুল ইসলাম দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার পালশা ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী, ধর্ষণ, পুলিশকে লাঞ্চিত ও মাদকদ্রব্য বহন ও খাওয়ার অপরাধে ৮টি মামলা রয়েছে।

ডুগডুগির হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ. মান্নান তার বিরুদ্ধে এই তিন লাখ টাকার চাঁদাদাবির মামলা দায়ের করেন। মামলায় ময়নুল ইসলামকে সোমবার ডুগডুগি হাট থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় হিলি-হাকিমপুর সার্কেল এএসপি আখিউল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, ২০১৯-২০২০ সালের অর্থ বছরের ওয়াস বোলোক এর কাজের ১৪ লাখ এবং সিলিফ ক্ষুদ্র মেরামত কাজের ৩ লাখ এ নিয়ে মোট ১৭ লাখ টাকার কাজের জন্য ডুগডুগির হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ. মান্নানের কাছে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন ময়নুল ইসলাম। এর মধ্যে চাঁদার ৬৫ হাজার টাকা গত ১৪/০২/২০ তারিখে এবং ৭৫ হাজার টাকা গত ২০/২/২০ তারিখে গ্রহণ করেন। আর অবশিষ্ট ১ লাখ ৬০ হাজার চাঁদার টাকার জন্য গত ২০/২/২০ তারিখ সন্ধ্যায় ডুগডুগিরহাট বাবুর হোটেলের সামনে আ. মান্নান মণ্ডলকে আটক করেন ময়নুল।

পরে তিনশত টাকা মূল্যের নন-জুটিসিয়াল স্ট্যাম্পে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে স্বাক্ষর নেন এবং অবশিষ্ট ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা চাঁদার জন্য মারপিট করেন।

এই ঘটনায় প্রধান শিক্ষক আ. মান্নান ঘোড়াঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন। এই মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।