আগুন পোহাতে গিয়ে গৃহবধূ দগ্ধ, ২ দিন পর মৃত্যু

43

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

রংপুরে আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হওয়া এক গৃহবধূ মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) সকালে রংপুর মেডিক‌্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। লিমা নামের ওই নারী রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার সেতুলপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের স্ত্রী।

লিমার স্বজনরা জানিয়েছেন, রোববার (২০ ডিসেম্বর) সকালে তীব্র শীতের কবল থেকে বাঁচতে খড়-কুটো জ্বালিয়ে আগুন পোহাচ্ছিলেন লিমা। এ সময় অসাবধানতার কারণে তার পরণের কাপড়ে আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে তা শরীরের বিভিন্ন অংশে ছড়িয়ে পড়ে। মারাত্মক দগ্ধ অবস্থায় তাকে রমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

লিমার মা গোলাপি বেগম জানান, ১৫ দিন আগে তার মেয়ে একটি সন্তান প্রসব করেছিল। ঠান্ডা থেকে রক্ষা পেতে খড়-কুটো জ্বালিয়ে আগুন পোহাতে গেলে তার ম‌্যাক্সিতে আগুন লাগে।

রমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের প্রধান ডা. এম এ পলাশ জানান, লিমার শ্বাসনালীসহ শরীরের ৬০ ভাগ দগ্ধ হয়েছিল।

তিনি আরও জানান, লিমার মতো আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হওয়া আরও ১৫ জন রমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন।

You might also like