‘বিএনপির আন্দোলন কি আদালতের বিরুদ্ধে?’

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ

৫ ডিসেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি না হলে দলটি যে আন্দোলনের হুমকি দিয়েছে, তার সমালোচনা করে তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ প্রশ্ন রেখেছেন, ‘বিএনপির আন্দোলন কি আদালতের বিরুদ্ধে?’

বুধবার সকালে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের প্রস্তুতি দেখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, “৫ ডিসেম্বর বেগম খালেদা জিয়ার জামিন না হলে আন্দোলনটা কার বিরুদ্ধে? আন্দোলনটা কি আদালতের বিরুদ্ধে? কারণ, জামিন দেয়ার এখতিয়ার তো আদালতের, জামিন দেয়ার এখতিয়ার সরকারের নয়। তাহলে তারা আদালতের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামবে- সেটিই তো মনে হয়।’

‘সুতরাং তাদের এ বক্তব্যের মাধ্যমে এটিই প্রমাণিত হয়, তারা আইন মানে না, আদালত মানে না, দেশের বিচার মানে না। যদি বিচার না মানে, আইন না মানে, আদালত না মানে এবং আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে যদি তারা রাজপথে নামে, আমি মনে করি তা আদালত অবমাননা এবং সেক্ষেত্রে আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে কিছু করে কি না সেটিই দেখার বিষয়।”

আওয়ামী লীগের সম্মেলন উপলক্ষে দলের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সম্মেলন শুধু আওয়ামী লীগের ক্ষেত্রে নয়, এটি সমগ্র রাজনীতির ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এ সম্মেলনের মাধ্যমে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে প্রাণ সঞ্চার হয় এবং নতুন নেতৃত্ব বেরিয়ে আসে।’

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আইন বিষয়ক সম্পাদক ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, কেন্দ্রীয় নেতা মির্জা আজম এমপি, যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ, সাইফুর রহমান সোহাগ, গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সাহাদাত হোসেন, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এ এফ এম সোহরাওয়ার্দ্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।